করোনার বাজারে কৃষকের বাজিমাত, ছাগল ভাড়া দিয়ে আয় ৫০ লক্ষ!

করোনার বাজারে কৃষকের বাজিমাত, ছাগল ভাড়া দিয়ে আয় ৫০ লক্ষ!
farmer earns nearly rs 50 lakh by renting out her goats for zoom meetings

বাড়িতে বসে কাজ করে অনেকেই বিরক্ত। জুম মিটিং বা ভিডিও কল মাঝে মধ্যেই একঘেয়ে হয়ে যায়। তাই সেই একঘেয়েমি কাটাতে নিজের মুখের বদলে মাঝে মাঝে ছাগলের মুখ দেখালে বিষয়টি একটু অন্য রকম লাগে। অর্থাৎ মানুষের বদলে কখনও ছাগল চলে আসতে পারে মিটিংয়ে।

  • Share this:

#লন্ডন: লকডাউনে বহু মানুষের রোজগারেই সমস্যা হয়েছে। চাকরি হারিয়েছেন এমন মানুষের সংখ্যাও কম নয়। অনেকেই চাকরি হারিয়ে নতুন কাজের খোঁজে রয়েছেন বা ব্যবসা শুরুর কথা ভেবেছেন। আর যাঁদের ব্যবসায় সমস্যা হয়েছে, তাঁরা অন্য কোনও ব্যবসার দিকে ঝুঁকেছেন। একই অবস্থা হয়েছে বিশ্বের প্রায় সব প্রান্তের মানুষের। কিন্তু অনেকেই অর্থের জন্য নতুন কিছু শুরু করতে পারেননি। কিন্তু এই মহিলা প্রমাণ করেছেন ব্যবসার জন্য অর্থ নয়, বুদ্ধির প্রয়োজন রয়েছে। অর্থ কম থাকলেও বুদ্ধি দিয়ে ঠিক আয় করা যায়!

ইংল্যান্ডের বাসিন্দা ডট ম্যাককারথি। তাঁর ব্যবসা রয়েছে ছাগল খামারের। সেই খামার থেকে যা টাকা তিনি পেতেন, তা দিয়ে সে ভাবে না চলায়, তিনি ফার্মটি ভাড়া দেওয়া শুরু করেন। স্কুলের পড়ুয়ারা মাঝে মাঝে খামার দেখতে আসত, সেখান থেকে আয় হত। আর নয় তো বিয়েবাড়ির জন্য ওই জায়গা ভাড়া দিতেন তিনি। লকডাউনে সেই আয়তেও বাধা পড়ে। এই সময়ে পুরো ব্যবসাই বন্ধ হয়ে যায়। ফলে বিরাট আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয় তাঁকে। পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে ব্যবসা শুরু হয় ঠিকই, কিন্তু আবারও নতুন স্ট্রেইনের ফলে লকডাউন তাঁর ও তাঁর মতো অনেকের জীবনে খারাপ সময় এনে দেয়।

এই পরিস্থিতিতে আয়ের উপায় বের করেন ডট। ৩২ বছর বয়সী এই কৃষকের মাথায় এক নতুন পরিকল্পনা আসে। যা তিনি নিজের ওয়েবসাইটে দেন। প্রথমে বিষয়টি একদমই হাসির ছলে দিলেও পরে এটি বাস্তবায়িত করার কথা ভাবেন।যেহেতু মহামারির জন্য সারা বিশ্বে জুম মিটিংয়ে বা ভিডিও কলের মাধ্য়মে কাজ হচ্ছে, তাই তিনি সেটাকেই কাজে লাগিয়ে নতুন ব্যবসা চালু করার কথা ভাবেন।


কী ছিল সেই পরিকল্পনা?

বাড়িতে বসে কাজ করে অনেকেই বিরক্ত। জুম মিটিং বা ভিডিও কল মাঝে মধ্যেই একঘেয়ে হয়ে যায়। তাই সেই একঘেয়েমি কাটাতে নিজের মুখের বদলে মাঝে মাঝে ছাগলের মুখ দেখালে বিষয়টি একটু অন্য রকম লাগে। অর্থাৎ মানুষের বদলে কখনও ছাগল চলে আসতে পারে মিটিংয়ে। এবার এই ছাগলই ডটের  খামার থেকে ভাড়া নেওয়া যেতে পারে।

এই নতুন পরিকল্পনাই কাজ করে যায় ও তিনি ওয়েবসাইটে বিষয়টি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রায় ২০০টি মেইল পান! সেই শুরু, তিনি এখনও পর্যন্ত ভিডিও কলে ছাগল ভাড়া দিয়ে প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা রোজগার করেছেন।সোশ্যাল মিডিয়ায় বিষয়টি জানাজানি হওয়ায়, তাঁর ফার্মটির জনপ্রিয়তা বাড়ছে। অস্ট্রেলিয়া, চিন, রাশিয়া থেকেও তাঁর কাছে ছাগল ভাড়া চাওয়া হচ্ছে। আর এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হওয়ায় খুশি ম্যাককারথিও। কারণ লকডাউনে যে ক্ষতি হয়েছিল, তা থেকে বর্তমানে তিনি অনেকটাই মুক্ত!

Published by:Subhapam Saha
First published:

লেটেস্ট খবর