Viral: গালাগালি ভেবে পেজের নামটাই মুছে দিল Facebook! গ্রামের নামটা আসলে কী জানেন

Viral: গালাগালি ভেবে পেজের নামটাই মুছে দিল Facebook! গ্রামের নামটা আসলে কী জানেন

খারাপ গালাগালি ভেবে পেইজ মুছে দিল Facebook; গ্রামের নামটা আসলে কী?

কেন এমন করল Facebook, তা গ্রামের নামটি জানলেই বুঝে নিতে আর অসুবিধা হবে না!

  • Share this:

#প্যারিস: ফরাসি বানান, বিশেষ করে তার উচ্চারণ নিয়ে হোঁচট খান অনেক পণ্ডিত ব্যক্তিরাও। কেন না, বানানে যা লেখা রয়েছে, ফরাসিতে হুবহু সে রকম উচ্চারণ হয় না। ফরাসি ভাষার নামের ইংরেজি বানান হয় একরকম আর উচ্চারণ হয় স্থানীয় বাগধারা অনুসারে আরেক রকম! কিন্তু আপাতত ফরাসি দেশের যে গ্রাম নিয়ে তুমুল আলোড়ন পড়ে গিয়েছে বিশ্বদরবারে, তাকে খারাপ গালাগালি হিসেবে ভুল করার তেমন কারণ কিন্তু নেই! তাও Facebook-এর তরফে নীতি লঙ্ঘণ এবং অশালীনতার অভিযোগ তুলে ওই গ্রামের পেইজ মুছে দেওয়া হল। কেন এমন করল Facebook, তা গ্রামের নামটি জানলেই বুঝে নিতে আর অসুবিধা হবে না!

জানা গিয়েছে যে ওই ফরাসি গ্রামের নাম Bitche! আর একেই Facebook-এর অ্যালগরিদম গুলিয়ে ফেলেছে ইংরেজি গালাগালি Bitch-এর সঙ্গে। সে ভাবে দেখলে Bitch শব্দটির ব্যুৎপত্তিগত অর্থ চতুষ্পদ শ্রেণীর মহিলা সদস্য। বর্তমানে মূলত মেয়ে কুকুর বোঝাতে শব্দটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। সেই সঙ্গে সারা বিশ্বেই এটি নারীজাতিকে হেয় করার উদ্দেশ্যে খারাপ গালাগালি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। ওই গ্রামের Facebook পেইজের নাম ছিল Ville de Bitche অর্থাৎ Bitche নামের গ্রাম! কিন্তু Facebook-এর অ্যালগরিদম একে খারার গালাগালি হিসেবে গ্রহণ করেছে আর তাতেই ঘটেছে প্রমাদ!

মোজেল নদী অববাহিকায় অবস্থিত নয়নাভিরাম এই শতাব্দীপ্রাচীন গ্রামের মেয়র জানিয়েছেন যে Facebook-এর এই পদক্ষেপ রীতিমতো অসম্মানজনক তাঁদের পক্ষে। এই প্রসঙ্গে তিনি Facebook-এর যন্ত্রনির্ভর অ্যালগরিদমের সমালোচনা করে বলেছেন যে যদি একান্তই এভাবে নজরদারি চালাতে হয়, তাহলে সেক্ষেত্রে মানুষ নিয়োগ করা উচিত। তিনি জানিয়েছেন যে চলতি বছরের ৯ মার্চ Facebook-এর তরফ থেকে তিনি একটি চিঠি পান। তাতে লেখা ছিল যে অশালীন শব্দ ব্যবহার এবং নীতি উল্লঙ্ঘণের জন্য তাঁদের পেইজটি সংস্থা ডিঅ্যাক্টিভেট করেছে!

Facebook-এর ফ্রান্সের ব্যবস্থাপনা যিনি দেখেন, সেই উচ্চপদস্থ কর্তা ঘটনার জন্য মেয়রের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছেন এবং জানিয়েছেন যে তাঁদের পেইজটি আবার ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে ততক্ষণ পর্যন্ত মেয়র বসে থাকেননি, গ্রামের পিনকোড দিয়ে তিনি Mairie 57230 নামে একটা নতুন পেইজ খুলে নিয়েছিলেন। যাই হোক, আপাতত সমস্যা মিটে যাওয়ায় তিনি সন্তুষ্ট, তিনি Facebook-কর্তাদের গ্রাম ঘুরে যাওয়ার আমন্ত্রণও জানিয়েছেন।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

লেটেস্ট খবর