বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

অবিশ্বাস্য!নেই গর্ভলক্ষণ, প্রেগন্যান্সি টেস্টও নেগেটিভ! সন্তান জন্ম দিল ওরাংওটাং!

অবিশ্বাস্য!নেই গর্ভলক্ষণ, প্রেগন্যান্সি টেস্টও নেগেটিভ! সন্তান জন্ম দিল ওরাংওটাং!

স্বাভাবিক ভাবেই সন্তানের জন্মের পর দারুণ খুশি লিয়াও। জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই সন্তানকে সে তুলে নিয়েছে বুকে, তাকে সঙ্গে করেই ঘুরে বেড়াচ্ছে সর্বত্র, এক মুহূর্তের জন্যও কাছছাড়া করছে না!

  • Share this:

সন্তানের জন্ম নিঃসন্দেহেই আনন্দের এক ঘটনা। সে যেমন আমার বা আপনার বাড়িতে, তেমনই চিড়িয়াখানাতেও। কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার অন্তর্গত বোর্নিওর চেস্টার চিড়িয়াখানার কর্তা ক্রিস ইয়ারউড আনন্দ যতগুণ না পেয়েছেন, অবাক হয়েছেন তার চেয়ে ঢের বেশি! বার বার তিনি বলছেন ঘনিষ্ঠজন এবং সংবাদমাধ্যমকে- চিড়িয়াখানায় রাখা বোর্নিওর এই মাদি ওরাংওটাংয়ের কোনও গর্ভলক্ষণই প্রকাশ পায়নি!

আর সেখান থেকেই এই ঘটনা স্থান করে নিয়েছে সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে। ইয়ারউড সাফ জানিয়েছেন যে তাঁদের মনে প্রথমে সন্দেহ ছিল- হয় তো বা সন্তানের জন্ম দিতে চলেছে বোর্নিওর ওরাংওটাং লিয়া! তাই দফায় দফায় বেশ কয়েক বার প্রেগন্যান্স টেস্ট হয়েছে তার। হলে কী হবে, প্রতিবারেই রিপোর্ট এসেছে নেগেটিভ! এমনকি সন্তানের জন্মের ঠিক এক মাস আগেও!

ফলে সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত ভাবে যখন সন্তানের জন্ম দিল লিয়া, হকচকিয়ে গেলেন ইয়ারউড-সহ চিড়িয়াখানার অন্য কর্মীরাও। যাই হোক, তাঁদের দেওয়া খবর বলছে যে সন্তানপ্রসবের ব্যাপারে কোনও রকম শারীরিক জটিলতার সৃষ্টি হয়নি।

স্বাভাবিক ভাবেই সন্তানের জন্মের পর দারুণ খুশি লিয়াও। জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই সন্তানকে সে তুলে নিয়েছে বুকে, তাকে সঙ্গে করেই ঘুরে বেড়াচ্ছে সর্বত্র, এক মুহূর্তের জন্যও কাছছাড়া করছে না! আফশোসের ব্যাপার শুধু একটাই- এই যে সে সন্তানের ধারে-কাছে কাউকেই ঘেঁষতেই দিচ্ছে না, তাতে করে সন্তানটি ছেলে না মেয়ে তা এখনও পর্যন্ত বুঝে ওঠা যায়নি! আর লিঙ্গনির্ধারণ করা যায়নি বলেই এখনও পর্যন্ত তার নামকরণও করে উঠতে পারেননি ইয়ারউড এবং তাঁর দলবল!

অবিশ্বাস্য এই ঘটনা আরও এক দিক থেকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বোর্নিওর এই ওরাংওটাংয়ের প্রজাতি এখন এসে দাঁড়িয়েছে বিলুপ্তির মুখে। কারণ চোরাশিকারিদের আক্রমণ এবং বনভূমি সাফ করে পাম তেল চাষের কুপ্রচেষ্টা। ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর দ্য কনজারভেশন অফ নেচার-এর মতে সারা পৃথিবীতে একমাত্র ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিওর জঙ্গলেই দেখা মেলে এই প্রজাতির ওরাংওটাংয়ের; সব মিলিয়ে বড় জোর ৫৫ হাজার বেঁচে রয়েছে পৃথিবীর বুকে। সে দিক থেকে চিড়িয়াখানায় এই নবজাতকের আগমন খুবই উল্লেখযোগ্য ঘটনা বইকি!

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: October 8, 2020, 5:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर