২০১৮ সালে গোটা বিশ্বে ২৫-৩০টি ভয়াবহ ভূমিকম্পের সম্ভাবনা, জানাচ্ছে ভূ-বিজ্ঞানিরা

হ্যাঁ, ভূ-বিজ্ঞানিরা এরকমটিই বলছেন ৷ কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের রজার বিলহ্যাম এবং মন্টানা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেবেকা বেনডিক।

হ্যাঁ, ভূ-বিজ্ঞানিরা এরকমটিই বলছেন ৷ কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের রজার বিলহ্যাম এবং মন্টানা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেবেকা বেনডিক।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: হ্যাঁ, ভূ-বিজ্ঞানিরা এরকমটিই বলছেন ৷ কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের রজার বিলহ্যাম এবং মন্টানা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেবেকা বেনডিক। ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ লেটার্স’ নামের জার্নালে প্রকাশিত এক নিবন্ধে এই দুই ভূবিজ্ঞানী জানিয়েছেন, পৃথিবীর আবর্তন-গতির ক্রমশ কমছেআর তার কারণেই ভূমিকম্পের প্রবাহ দেখা দিতে পারে।

    গবেষণা পত্র অনুযায়ী, প্রতিদিনই পৃথিবীর আবর্তনের গতি কয়েক মিলিসেকেন্ড করে কমে যাচ্ছে। তবে মানুষ চট করে তা টের পায় না। কিন্তু এই গতি হ্রাসের ভূতাত্ত্বিক প্রভাব মারাত্মক। ১৯০০ সাল থেকে ঘটে যাওয়া যাবতীয় ভূমিকম্পকে পর্যবেক্ষণ করে দেখেছেন, প্রতি ৩২ বছরে একটি করে বড় ভূকম্প-প্রবাহ বিশ্বে ঘটেছে। এই সব ভূমিকম্পের পিছনে রয়েছে পৃথিবীর আবর্ত-গতি কমে আসা।

    ‘দ্য গার্ডিয়ান’-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিলহ্যাম জানিয়েছেন, ২০১৮-এ পৃথিবীতে ভূমিকম্পের সংখ্যা বাড়তে পারে। সাধারণত প্রতি বছর গড়ে ১৫-২০টি বড় ভূমিকম্প ঘটে। কিন্তু ২০১৮-এ ২৫-৩০টি ভূমিকম্পের সম্ভাবনা রয়েছে। অবশ্য এই ভূমিকম্পগুলি কোন কোন স্থানে ঘটতে পারে, সে বিষয়ে বিলহ্যাম নিশ্চিত কিছু বলতে পারেননি।

    First published: