corona virus btn
corona virus btn
Loading

কিমের অসুস্থতা নিয়ে রহস্য বাড়ল, আরোগ্য কামনা করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

কিমের অসুস্থতা নিয়ে রহস্য বাড়ল, আরোগ্য কামনা করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প
কিমকে শুভেচ্ছা জানালেন ট্রাম্প৷ PHOTO- FILE

মঙ্গলবারই জানা যায়, একটি অস্ত্রোপচারের পর উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিমের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক৷

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম দং উনের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ধোঁয়াশা অব্যাহত৷ সেই ধোঁয়াশা বজায় রেখেই কিমের দ্রুত আরোগ্য কামনা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

মঙ্গলবারই জানা যায়, একটি অস্ত্রোপচারের পর উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিমের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক৷ যদিও উত্তর কোরিয়া সরকার বা সেদেশের সংবাদমাধ্যম বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে৷ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বেশ কিছুদিন ধরে নিজের দেশেই জনসমক্ষে আসেননি কিম৷ তা থেকেই কিমের অসুস্থতার জল্পনা ছড়ায়৷

উত্তর কোরিয়ার শাসকের শারীরিক অবস্থা সংক্রান্ত খবরকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেমন সত্যি বলে স্বীকার করেননি, সেরকমই তাকে তিনি খারিজও করেননি৷ আর তাতেই আরও ধোঁয়াশা বেড়েছে৷ বিবৃতিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, 'এই ধরনের বেশ কিছু খবর সামনে এসেছে৷ এগুলি সত্যি কিনা আমরা জানি না৷ আমার সঙ্গে ওঁর সম্পর্ক খুবই ভাল৷ আমি তাঁর দ্রুত আরোগ্য প্রার্থনা করি কারণ এখনও পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে, তাতে তাঁর শারীরিক অবস্থা যথেষ্ট গুরুতর৷'

ট্রাম্প মুখে যাই বলুন না কেন আমেরিকার সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর খবর অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ার শাসক কিমের শারীরিক অবস্থার সংক্রান্ত খবরের উপরে কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন মার্কিন গোয়েন্দারা৷

ট্রাম্প আরও বলেন, 'আমি এর আগেও বহুবার বলেছি, যদি অন্য কেউ উত্তর কোরিয়ায় ক্ষমতায় থাকতেন, তাহলে এতদিনে ওদের সঙ্গে আমাদের যুদ্ধ বেঁধে যেত৷ কিন্তু আমারা উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কোনও যুদ্ধ করিনি বা করার মতো কোনও পরিস্থিতিও এখন নেই৷'

মার্কিন প্রেসিডেন্ট অবশ্য তাঁর দেশের সংবাদামাধ্যমের দাবি নিয়েই সংশয় প্রকাশ করেছেন৷ তিনি বলেন, 'আমি শুধু কিম জং উন-এর জন্য শুভকামনা করছি৷ কারণ যে ধরনের মেডিক্যাল রিপোর্টের কথা বলা হচ্ছে তা খুবই উদ্বেগজনক৷ কেউ এখনও এর সত্যতা স্বীকার করেনি৷ সিএনএন প্রথম এই রিপোর্টগুলি সামনে এনেছে৷ যদিও সিএনএন-এর কোনও দাবিকেই আমি খুব একটা বিশ্বাস করি না৷'

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: April 22, 2020, 10:21 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर