• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • DONALD TRUMP WANTED TO SEND COVID INFECTED AMERICANS TO THE ISLAND OF GUANTANAMO RRC

চাঞ্চল্যকর অভিযোগ ! করোনা আক্রান্তদের নির্জন দ্বীপে পাঠাতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প

ট্রাম্পের অদ্ভুত সিদ্ধান্তের কথা প্রকাশ্যে আসতে চলেছে

ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট থাকাকালে করোনায় সংক্রমিত লোকজনকে নির্জন গুয়ানতানামো দ্বীপে পাঠিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। তাঁর এমন তুঘলকি সব কর্মকাণ্ডের তথ্য প্রকাশিতব্য একটি বইয়ে রয়েছে

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: আমেরিকার প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসার পর তাঁর বিভিন্ন উক্তি অমর হয়ে আছে। যদিও সেগুলো রসিকতায় ভরা। ' চাঁদ মঙ্গল গ্রহের অংশ ', ' কিডনির বিশেষ জায়গা রয়েছে হৃদয়ের ভেতর ', " হিলারি যেখানে নিজের স্বামীকে সন্তুষ্ট করতে পারে না , সেখানে পুরো আমেরিকার জনগণকে কীভাবে সন্তুষ্ট করবেন ? ’’ ট্রাম্পের ইশারা বিল ক্লিনটন আর মনিকার সেই স্ক্যান্ডালের প্রতি৷ ৯/১১ জঙ্গি হামলাকে ভুল করে ৭/১১ বলেছিলেন। বিতর্ক ছিল তার ছায়াসঙ্গী। সম্প্রতি প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে নতুন একটি তথ্য সামনে এসেছে।

    ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট থাকাকালে করোনায় সংক্রমিত লোকজনকে নির্জন গুয়ানতানামো দ্বীপে পাঠিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। তাঁর এমন তুঘলকি সব কর্মকাণ্ডের তথ্য প্রকাশিতব্য একটি বইয়ে রয়েছে। ‘নাইটমেয়ার সিনারিও: ইনসাইড ট্রাম্প অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ’ নামের বইটি লিখেছেন ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক ইয়াসমিন আবু তালেব ও দামিয়ান প্যালেটা। হোয়াইট হাউসের তৎকালীন কর্মকর্তাসহ ১৮০ জনের বেশি লোকের সাক্ষাৎকার নিয়ে বইটি তথ্যসমৃদ্ধ করা হয়েছে।

    ২৮ জুন বইটি প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। বইয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের নানা অজানা তথ্য আছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে হোয়াইট হাউসের ‘সিচুয়েশন’ কক্ষে করোনায় সংক্রমিত মার্কিন নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে কথা হচ্ছিল। তখন ট্রাম্প উপস্থিত কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমাদের মালিকানায় একটা দ্বীপ আছে না ? গুয়ানতানামো দ্বীপে নিলে কেমন হয় ?’ মার্কিন বন্দিশিবির হিসেবে কুখ্যাতি অর্জন করা গুয়ানতানামো বের কথাই বলছিলেন ট্রাম্প।

    তিনি উপস্থিত কর্মকর্তাদের উদ্দেশে আরও বলেছিলেন, ‘আমরা বাইরে থেকে ভাইরাস নয়, মালামাল আমদানি করে থাকি।’ ট্রাম্পের এমন কথায় হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তারা অবাক হয়ে যান। তাঁরা প্রেসিডেন্টের এ পরামর্শকে দ্রুতই উড়িয়ে দেন। নিঃসন্দেহে ট্রাম্পের এমন মনোভাব জানাজানি হলে প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে সাধারণ আমেরিকানদের মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হবে তাতে সন্দেহ নেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: