• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ঘরে-বাইরে সমালোচনায় অভিবাসন নীতি নিয়ে পিছু হটলেন ট্রাম্প

ঘরে-বাইরে সমালোচনায় অভিবাসন নীতি নিয়ে পিছু হটলেন ট্রাম্প

দেশবাসী থেকে বিশ্ববাসী, সেলেব থেকে সাধারণ এমনকী ট্রাম্প প্রশাসনের অন্দরমহলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও প্রেসিডেন্টের নয়া অভিবাসন নীতি নিয়ে ছেড়ে কথা বলেননি ৷

দেশবাসী থেকে বিশ্ববাসী, সেলেব থেকে সাধারণ এমনকী ট্রাম্প প্রশাসনের অন্দরমহলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও প্রেসিডেন্টের নয়া অভিবাসন নীতি নিয়ে ছেড়ে কথা বলেননি ৷

দেশবাসী থেকে বিশ্ববাসী, সেলেব থেকে সাধারণ এমনকী ট্রাম্প প্রশাসনের অন্দরমহলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও প্রেসিডেন্টের নয়া অভিবাসন নীতি নিয়ে ছেড়ে কথা বলেননি ৷

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: দেশবাসী থেকে বিশ্ববাসী, সেলেব থেকে সাধারণ এমনকী ট্রাম্প প্রশাসনের অন্দরমহলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও প্রেসিডেন্টের নয়া অভিবাসন নীতি নিয়ে ছেড়ে কথা বলেননি ৷ বার বার বিভিন্ন মার্কিন আদালতে ধাক্কা খেয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিবাসন নীতি ৷ চোখরাঙানি, হুঁশিয়ারি কোনও কিছুতেই চিঁড়ে না ভেজায় অবশেষে নিজের অবস্থান থেকে সরে দাঁড়ালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ৷

    বিতর্কিত অভিবাসন নীতি বদলে পরের সপ্তাহেই নতুন আইন আনতে চলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ৷ হোয়াইট হাউসে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই কথা ঘোষণা করলেন স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ৷

    নজিরবিহীনভাবে এই প্রথম কোনও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্ত সব মহলে সমালোচিত ৷ শুধুই তাই নয় বিশ্ব জুড়ে ওঠে সমালোচনার ঝড় ৷

    বির্তকিত অভিবাসন নীতি প্রত্যাহার করায় বিভিন্ন আদালতে এই নীতি বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া ও চলতি মামলাগুলিকে বন্ধের আর্জি জানাল মার্কিন আইনমন্ত্রক ৷

    গত মাসের সাতাশ তারিখ বিতর্কিত ভিসা ও অভিবাসন নীতিতে সই করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর মাধ্যমে ইরাক, ইরান, লিবিয়া, সুদান, ইয়েমেন, সিরিয়া ও সোমালিয়া, মুসলিম অধ্যুষিত দেশের নাগরিকদের আমেরিকায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

    এই নিষেধাজ্ঞার জারি করার পর থেকেই চরম হয়রানির মুখ পড়তে হয়েছে এই সাত দেশের নাগরিকদের ৷ এই ঘোষণার পর থেকে প্রায় এক লক্ষ ভিসা বাতিল করা হয়েছে বলে দাবি মার্কিন বিদেশ দফতরের। বিতর্কিত অভিবাসন নীতির জেরে ঘরে-বাইরে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন ট্রাম্প। তাতে অবশ্য প্রথমে দমেননি নিউ ইয়র্কের প্রাক্তন রিয়েল এস্টেট জায়েন্ট। তবে পরে প্রবল চাপে মুসলিম অধ্যুষিত দেশগুলির উপর থেকে ব্যান প্রত্যাহার করতে বাধ্য হলেন মার্কিন প্রশাসনিক প্রধান ৷

    তবে এখানেই সমস্ত আশঙ্কার অবসান হচ্ছে না ৷ পরের সপ্তাহে আবার নতুন কোন ‘যুদ্ধ’ জারি করবেন ট্রাম্প সেই আশঙ্কা উদ্বেগে বিশ্ব ৷

    First published: