• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ লক্ষ ছাড়াল, মৃত ২ লক্ষ ৮৩ হাজারের বেশি

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ লক্ষ ছাড়াল, মৃত ২ লক্ষ ৮৩ হাজারের বেশি

Representational Image

Representational Image

আমেরিকায় করোনায় মৃত প্রায় ৮০ হাজার

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। কোনও ভাবেই রাশ টানা যাচ্ছে না আক্রান্তের সংখ্যায়। বিশ্বে এই মুহূর্তে আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ লক্ষ ছাড়াল। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। শেষ পাওয়া খবরে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লক্ষ ৮৩ হাজারের বেশি। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪ লক্ষ ৯০ হাজার জন।

    এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে খারাপ অবস্থা আমেরিকার। সেখানে প্রতি মুহূর্তে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুও। ইতিমধ্যেই আমেরিকায় মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৮০ হাজার জনের। সে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ১,৬৩১। আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লাখ ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যুর নিরিখে খারাপ পরিস্থিতি ব্রিটেনেও। এর মধ্যে ব্রিটেনে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ১৯ হাজার ছাপিয়ে গিয়েছে। মৃত ৩২ হাজারের কাছাকাছি। ইতালিতে মৃত্যু হয়েছে ৩০ হাজার ৫৬০ জনের। সেদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ১৯ হাজারের বেশি। স্পেনেও হু হু করে মৃত্যু বাড়ছে। স্পেনে ২ লাখ ২৪ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যা সেদেশে ২৬,৬২১ ছাড়িয়েছে। ফ্রান্সে সংক্রমিত ১ লক্ষ ৭৬ হাজার মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার মানুষের। ব্রাজিলেও হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। সেখানে ১.৫ লক্ষের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে সাড়ে ১০ হাজারের বেশি মানুষের। জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৭২ হাজারের কাছাকাছি, আর মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ছুঁইছুঁই। রাশিয়াতে ২ লক্ষ ৯ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত।

    সময়ের সঙ্গে সঙ্গে লাফিয়ে বাড়ছে ভারতের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আর সেই সঙ্গে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ভয় জাঁকিয়ে বসছে ভারতের বুকে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৩২৭৭ জন, মৃত্যু হয়েছে ১২৮ জনের। ফলে দেশে অ্যাক্টিভ করোনা কেসের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ‌৪১,৪৭২। তার মধ্যে রয়েছেন ১১১ জন বিদেশী নাগরিক। এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত্যু হয়েছে ২১০৯ জনের।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: