বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

পেঁচার মাথা কেটে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট মহিলার, এবার তাকেই খুন করল আততায়ীরা!

পেঁচার মাথা কেটে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট মহিলার, এবার তাকেই খুন করল আততায়ীরা!

২১ বছর বয়সী ওই মহিলার নামই দিয়ে দেওয়া হয় আউল কিলার (Owl Killer)। এ বার সেই মহিলাকেই তাঁর বাড়ির সামনে খুন করল কয়েকজন দুষ্কৃতী।

  • Share this:

#কলম্বিয়া: ছ'মাস আগে একটি পেঁচাকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিলেন কলম্বিয়ার (Colombia) এক মহিলা। তাকে মারার ছবি, তার গলা কাটার ছবি পোস্ট করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এমনকি ওই পেঁচাটির পাশে বসে মদ্যপান করার ছবিও তিনি দিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার পর নেটিজেনদের একাংশ গর্জে ওঠেন তাঁর বিরুদ্ধে। ২১ বছর বয়সী ওই মহিলার নামই দিয়ে দেওয়া হয় আউল কিলার (Owl Killer)। এ বার সেই মহিলাকেই তাঁর বাড়ির সামনে খুন করল কয়েকজন দুষ্কৃতী। অনেকেই মনে করছে, পেঁচা হত্যার সঙ্গে এটির লিঙ্ক রয়েছে।

২১ বছর বয়সী মিলেডিস আলডানা। কলম্বিয়ার এই বাসিন্দা কয়েকদিন আগে খুন হন বাড়ির সামনে। কয়েকজন দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে তাঁকে গুলি করে। ছ'বার গুলি করা হয় তাঁকে লক্ষ্য করে। তার পর তারা বাইক নিয়ে পালিয়ে যায়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে মিলেডিসকে মৃত বলে ঘোষণা করে তারা।

এই মিলেডিসই ছ'মাস আগে একটি পেঁচাকে মাথা কেটে খুন করেছিলেন। খুনের বিভিন্ন ধরনের ছবি ও তার পর শব দেহের ছবি তিনি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। তাঁর এই নারকীয় কাজ দেখে নিন্দার ঝড় বয়। বহু লোক তাঁর এই কাজ নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ জানান। তাঁর এই পোস্ট ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পুলিশের তরফে বিষয়টি নিয়ে তদন্তও শুরু হয়। মিলেডিসের উপরে পশু আইনে মামলা হয়। যা আদালতে চলছিল। কিন্তু তার মাঝেই ঘটে গেল এমন ঘটনা। যা দেখে স্তম্ভিত তাঁর প্রতিবেশীরা।

অনেকেই মনে করছেন, পেঁচা মারার ফলে কোনও পশুপ্রেমী আক্রোশে এ কাজ করে থাকতে পারে। অনেকে আবার মনে করছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় এত ফেমাস হয়ে যাওয়ায় তাণকে এই মাশুল গুনতে হল।

পুলিশ অবশ্য এই খুনের সঠিক কারণ বলতে পারেনি এখনও। তারা জানিয়েছে, বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষ। সব কিছু খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে, পেঁচা হত্যার সঙ্গে এটির যোগসূত্র থাকলেও থাকতে পারে।

অবশ্য, মিলেডিসকে যারা খুন করেছে, তাদের এখনও কিনারা করতে পারেনি পুলিশ। তাদের খোঁজ পাওয়া গেলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে খুনের মোটিভ জানা যেতে পারে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: December 16, 2020, 3:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर