Home /News /international /
খিদের জ্বালায় বাঁচল প্রাণ

খিদের জ্বালায় বাঁচল প্রাণ

বেড়াতে গিয়ে এমন ভয়াবহ মুহূর্তের সাক্ষী হতে হবে যে তাদের তা হইতো এই নব দম্পতি স্বপ্নেও ভাবেনি ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নিস: ২৮ বছরের ঐশ্বর্য সিং ও তার স্ত্রী আকাঙ্খা ফ্রান্সে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ৷ প্রাক্তন আইএস আধিকারিকের পুত্র ঐশ্বর্যের সঙ্গে জানুয়ারি মাসে  বিয়ে হয় আকাঙ্খার ৷  পারিবারিক একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ফ্রান্সে গিয়েছিলেন নববিবাহিত এই দম্পতি ৷ সেখান থেকে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন নিসে ৷ তবে বেড়াতে গিয়ে এমন ভয়াবহ মুহূর্তের সাক্ষী হতে হবে যে তাদের তা হইতো এই নব দম্পতি স্বপ্নেও ভাবেনি ৷

    স্থানীয় সময় তখন রাত সাড়ে দশটা । প্রোমোনাদে দে'স অ্যাংলাইসে  জাতীয় দিবস ‘ বাস্তিল ডে’ উপলক্ষে তখন উপচে পড়া ভিড় ফ্রান্সের সমুদ্র সৈকতের নিস শহরে।  চলছে আতসবাজি প্রদর্শনী ৷ অনুষ্ঠান দেখতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন ঐশ্বর্য ও আকাঙ্খাও ৷ কিন্তু হঠাৎ তাদের খিদে পেয়ে যায় ৷ তাই স্ত্রীকে নিয়ে সেখান থেকে সরে একটি খাবার দোকানের দিকে যান তারা ৷ কয়েক মিনিটের মধ্যে প্রচন্ড জোরে একটি আওয়াজে চমকে যান সকলে ৷ মূহূর্তের মধ্যে উৎসবের মেজাজ বদলে যায় আতঙ্কে । আতঙ্ক ছড়াতেই দিকবিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে তারা ছুটতে থাকে ৷

    Nice-Attack

    জয়পুরের দম্পতি রাস্তা থেকে খাবার কিনতে সরে আসতেই এক আততায়ী গ্রেনেড , আগ্নেয়াস্ত্র বোঝাই ট্রাক নিয়ে দর্শকদের ভিড়ে ঢুকে যায়।  ট্রাকে পিষ্ট হয় মৃত্যু হয়  কমপক্ষে আশি জনের ।  আহত শতাধিক। ট্রাকের ধাক্কায় ছিটকে পড়েন মানুষজন।  চাকার তলায় পিষ্ট হয়ে যান অনেকে। অনেকের দেহ পিষতে পিষতে টেনেহেঁচড়ে প্রায় দু কিলোমিটার নিয়ে যায় ট্রাকটি।  নিহতদের মধ্যে অনেক শিশুও ছিল।  কেউ কেউ পালানোর চেষ্টা করে। হুড়োহুড়িতে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে ওঠে।

    Nice-attack-2

    সংবাদমাধ্যমকে জয়পুরের ওই দম্পতি এই হামলা থেকে বেঁচে ফেরার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছে খিদেকে ৷ নিজেদের অভিজ্ঞতা জানানোর সময় আরও একবার ভয়ে শিউরে উঠেছিল তারা ৷ তখনও গলা কাঁপছিল ওঁদের ৷ তারা জানায় যে প্রথমে গুলির আওয়াজ শুনে কোনও দিকে না তাকিয়ে শুধু দৌড়ে যাচ্ছিলেন  । একে অপরের হাত ধরে ছুটে চলেছিলেন ৷ কিন্তু হঠাৎ হোঁচট খেয়ে পড়ে যান ঐশ্বর্য। তাকিয়ে দেখেন একটি নিথর দেহের উপর হোঁচট খেয়ে পড়ে গিয়েছেন তিনি ৷ চারপাশে তাকিয়ে দেখতেই চোখে পড়ে একটা নয় আরও বহু রক্তাত্ত দেহ নিথর হয়ে পড়ে রয়েছে রাস্তার উপরে ৷  এতক্ষণ ধরে এরকমই বহু দেহ মারিয়ে এসেছেন তারা ৷ ভাবতেই যেন গোটা শরীরটা আরও ঠান্ডা হয়ে যায় ৷ অবশেষে ঘটনাস্থল থেকে একটু দুরে একটি হোটেলে গিয়ে আশ্রয় নেয় তারা ৷ প্রাণে বেঁচে গেলেও  ভয় ও আতঙ্ক এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি জয়পুরের এই দম্পতি ৷  ঘটনাটি বর্ণনা করার সময় আরও একবার গলা কাঁপছিল ওঁদের ৷ ভয়াবহ এই দিনের স্মৃতি যেন তাড়া করে বেড়াছে  এই দম্পতিকে ৷

    First published:

    Tags: France, Jaipur couple, Nice Attack, Nice truck attack, Terror Attack, নিস

    পরবর্তী খবর