• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • CHINESE MAN BUILDS HUGE PINK ISLAND TO WIN BACK LOVER GETS TURNED DOWN BUT ATTRACTS TOURISTS PB

প্রেমিকাকে ফেরাতে গোলাপি দ্বীপ বানালেন যুবক ! তারপর ? চোখে জল আনবে ঘটনা !

পিঙ্ক আইল্যান্ড তৈরি করেও ভালোবাসার মন জিততে পারেননি যুবক, এখন সেখানে ভিড় জমান প্রেমিক-প্রেমিকারা!

এই অসাধারণ সুন্দর দ্বীপটি তৈরি করতে না কি ১০০ হাজার ইউয়ান অর্থাৎ প্রায় ১১,১৬,৪২৪ টাকা খরচ করেছিলেন জু।

  • Share this:

#গুয়াংডং: ভালোবাসাকে ফিরে পেতে অদ্ভুত সব কাজ করে বসেন লোকজন। কেউ নিজের প্রাণ পর্যন্তও দিয়ে দেন। কেউ আবার নিজের প্রেমিক-প্রেমিকাকে খুশি করতে বিস্ময়কর কিছু করে বসেন। চিনের বাসিন্দা জু এরকমই এক নজির গড়েন। প্রেমিকাকে ফেরাতে একটি মনোরম দ্বীপ তৈরি করেন তিনি। না, প্রেমিকা ফিরে আসেন। তবে সেই দ্বীপ এখন প্রত্যেক প্রেমিক-প্রেমিকার পছন্দের গন্তব্য।

জু-এর গল্পটা অনেকটা নোটবুক সিনেমার মতো। দক্ষিণ চিনের গুয়াংডং প্রদেশের ইংয়েডে শহরের হেটিও গ্রাম। বর্তমানে এখানে প্রচুর মানুষ ভিড় জমান। সবার একটাই ইচ্ছে, এখানকার গোলাপি দ্বীপ থেকে ঘুরে আসা। তবে এর নেপথ্যে একটি গল্প রয়েছে। অত্যন্ত গভীর ভাবে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন জু। এমন সময়ে সম্পর্কে চিড় ধরতে শুরু করে। কারণ বয়স্ক বাবা-মায়ের দেখাশোনা করার জন্য দেশের অন্য প্রান্তে যেতে হয়ে জু-কে। আর শহরেই থেকে যান তাঁর প্রেমিকা। ধীরে ধীরে খারাপ হতে শুরু করে সম্পর্ক। এদিকে নোটবুক সিনেমার চরিত্র নোয়ার মতো লাভ আইল্যান্ড তৈরি করতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন জু। ভেবেছিলেন প্রেমিকাকে উৎসর্গ করে, আবার ফিরে পাবেন হারিয়ে যাওয়া ভালোবাসা।

শুরু হয় স্বপ্নের কাজ। স্থলভাগ থেকে দ্বীপের দিকে একটি সেতুর মাধ্যমে যোগাযোগ তৈরি করা হয়। পুরো দ্বীপটাই ঢেকে দেওয়া হয় গোলাপি রঙে। নানা ধরনের ফুল, চেরি,পিচ থেকে শুরু বিভিন্ন ধরনের গাছ ও ঘাস দিয়ে সাজানো হয় পুরো এলাকাকে। ভালোবাসার প্রতীক হিসেবে দ্বীপের মধ্যে হার্ট শেপে রাস্তাও তৈরি করা হয়। এই অসাধারণ সুন্দর দ্বীপটি তৈরি করতে না কি ১০০ হাজার ইউয়ান অর্থাৎ প্রায় ১১,১৬,৪২৪ টাকা খরচ করেছিলেন জু। সত্যি বলতে গেলে, জীবনের সব সঞ্চয় লাগিয়ে দেন এই দ্বীপের সৌন্দর্যায়নে।

কিন্তু প্রেমিকাকে ডেকে জু যখন এই উপহার দিতে চান, তখন গল্প অন্য দিকে মোড় নেয়। তা নিতে অস্বীকার করেন জু-এর প্রেমিকা। মেয়েটি জু'কে জানান, এই অসাধারণ চেষ্টার জন্য অনেক ধন্যবাদ। তবে জীবনে অন্য কাউকে পেয়ে যাবে তুমি। সেদিন সাফল্য ও ব্যর্থতা যেন অদ্ভুত ভাবে নেমে এসেছিল জু-এর জীবনে। তবে এ নিয়ে জু-এর বিশেষ কোনও আক্ষেপ নেই। প্রেমিকাকে ভালোবেসে তৈরি করা এই জায়গা আজ অনেকের মিলনের সাক্ষী হয়ে থাকে। প্রচুর প্রেমিক-প্রেমিকা রোজ ঘুরে যান এই দ্বীপ থেকে। কেউ বিয়ের জন্য ফটোশ্যুট করে। কেউ আবার প্রেমের প্রস্তাব দেয়। জু-এর নিজের প্রেম সফল হয়নি। তবে, প্রেমের জন্য তৈরি এই জায়গায় রোজ অনেকের প্রেম গন্তব্য পায়। আর এতেই খুশি জু। এই অপরিণত প্রেমগুলির গন্তব্য খুঁজে নেওয়ার মধ্য দিয়ে যেন নিজের প্রেমকে আরও একবার অনুভব করেন ব্যর্থ প্রেমিক জু।

Published by:Piya Banerjee
First published: