• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • রাতারাতি লাখপতি! বাড়ি পরিষ্কার করতে গিয়ে ৯৫ লাখ টাকার চায়ের পাত্র পেলেন যুবক

রাতারাতি লাখপতি! বাড়ি পরিষ্কার করতে গিয়ে ৯৫ লাখ টাকার চায়ের পাত্র পেলেন যুবক

আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম ১ লক্ষ পাউন্ড অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৯৫ লক্ষ টাকা উঠতে পারে বলে মত ওই নিলাম সংস্থার ।

আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম ১ লক্ষ পাউন্ড অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৯৫ লক্ষ টাকা উঠতে পারে বলে মত ওই নিলাম সংস্থার ।

আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম ১ লক্ষ পাউন্ড অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৯৫ লক্ষ টাকা উঠতে পারে বলে মত ওই নিলাম সংস্থার ।

  • Share this:

    #ডার্বিশায়ার: ঘর পরিষ্কার করতে তিনি যখন শুরু করেন হয়তো তখন আড়াল থেকে হাসছিলেন বিধাতা পুরুষ । কখন, কীভাবে, কার ভাগ্য যে খুলে যেতে পারে, তা একমাত্র সর্বশক্তিমানই জানেন । ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে কী হয়, তার প্রমাণই হাতে-নাতে পেলেন ব্রিটেনের ডার্বিশায়ারের এই যুবক ।

    লকডাউনে তিনি বাড়ির গ্যারাজ পরিষ্কার করার পরিকল্পনা করেন । যেমন ভাবা তেমন কাজ । সরঞ্জাম নিয়ে হাজির হন গ্যারাজে । ধুলোবালি ছাড়তে গিয়ে হঠাৎই হাতে আসে পুঁচকে এক টি-পট । দেখতে ছোট হলে কী হবে, জিনিসটা যে আর পাঁচটা চায়ের পাত্রের মতো মামুলি নয় তা বেশ বুঝতে পেরেছিলেন তিনি । টি-পটটি পরিষ্কার করতেই দেখা যায়, তার গায়ে অপূর্ব সুন্দর নক্সা কাটা । ঠিক যেন আলাদিনের সেই আশ্চর্য প্রদীপটার মতো । যেটি ঘষলেই জিন বেরিয়ে আসত, আর আলাদিনের কথা মতো সব কাজ করত ।

    টি-পটটি কিয়ালং সাম্রাজ্যের সময়কার বলে জানা গিয়েছে । এ ধরনের পাত্রতে চা বা সুরা পান করতেন রাজা-রাজরারা । বহুমূল্য জিনিসটি এখন ব্রিটেনের নিলাম সংস্থা হ্যানসনসের হাতে তুলে দিয়েছেন যুবক। আর হ্যানসনস এমন জিনিস দেখে তার যা সম্ভাব্য দাম বলেছে, তাতে চোখ কপালে উঠেছে যুবকের। প্রাচীন এই টি-পটটির বাজার দর নাকি ৯৫ লাখ টাকা ।

    এনামেলের টি-পটটি সম্ভবত কোনও চিনা সংস্থার কাছে বেচবে হ্যানসন । আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম ১ লক্ষ পাউন্ড অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৯৫ লক্ষ টাকা উঠতে পারে বলে মত ওই নিলাম সংস্থার । আসলে ওই টি-পটটি একটি চিনা রাজবংশের সময়ের । কিং রাজবংশ ছিল চিনের সর্বশেষ রাজবংশ । এই রাজবংশের উন্নতি হয়েছিল কিয়ালং সম্রাটদের শাসনকালে । ওই টি-পটটিতে কিয়ালং সাম্রাজ্যের শৈল্পিক রীতি খোদাই করা রয়েছে । পাশাপাশি চিনা ভাষাতেও কিছু লেখা রয়েছে এর গায়ে ।

    তবে সম্ভবত ওই যুবক ওই জিনিসটি বেচতে ইচ্ছুক নন । তাঁরা টি-পটটি কোনও মিউজিয়ামে দান করতে চান ।

    Published by:Simli Raha
    First published: