বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৬ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে করোনা ভাইরাস, বলছে গবেষণা!

৬ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে করোনা ভাইরাস, বলছে গবেষণা!

করোনাভাইরাস নিয়ে আমাদের চারপাশে আসছে নিত্য নতুন তথ্য।

  • Share this:

#জর্জিয়া: করোনাভাইরাস নিয়ে আমাদের চারপাশে আসছে নিত্য নতুন তথ্য। কখনও বাতিল হয়ে যাচ্ছে মাস কয়েক আগের অনুমান করা নতুন তথ্যও। কোনও কোনও তথ্যে সিলমোহর দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু। কোনওটি আবার উড়িয়েও দিচ্ছে। মোট কথা, এই মারণ ভাইরাসের চরিত্র নিয়ে এখনও ধন্দে রয়েছেন বিজ্ঞানীকুল। যেমন, প্রথমে বলা হয়েছিল ৬ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে না করোনাভাইরাস। পরে তার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তাই গবেষণা চলেছে লাগাতার। আর এখন গবেষকরা এখন বলছেন, ৬ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতেই পারে কোভিড ১৯ ভাইরাস। তবে এই ভাবে সংক্রমণ কতটা ছড়িয়েছে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে ভাইরাস বিশেষজ্ঞদের। মানুষ কথা বললে, গান গাইলে, চিৎকার করলে, হাঁচলে, কাশলে, বাতাসে ড্রপলেট ছড়ায়। এর মধ্যে দিয়েই সংক্রমিত রোগীর থেকে করোনাভাইরাস ছড়ায়। সংক্রমণ এড়াতে ন্যূনতম ৬ ফুট দূরত্ব রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল, কারণ অনুমান করা হয়েছিল ৬ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করার আগেই ড্রপলেট মাটিতে পড়ে যায়। তবে ড্রপলেটের চেয়েও বায়ুর সূক্ষ্মকণা হল এয়ারোসল। বিজ্ঞানীদের অনুমান কয়েক মিনিট থেকে কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত বাতাসে থাকতে পারে এয়ারোসল। বায়ু চলাচলের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকলে এই সূক্ষ্ম বায়ুকণা সারা ঘরে ছড়িয়ে যেতে পারে। এবং সেই ঘরে শ্বাস-প্রশ্বাস নিলে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।

ভার্জিনিয়া টেকের সংক্রামক বায়ুবাহিত রোগ নিয়ে গবেষণা করা লিনসে মার জানিয়েছেন এয়ারোসলের ক্ষেত্রে ৬ ফুট দূরত্বই যথেষ্ট নয়, সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে আরও বেশি দূরত্ব মেনে চলাই সমীচীন। বিজ্ঞানীরা বলছেন একান্তই মানুষের সঙ্গে আলাপচারিতা জমাতে হলে ঘরের ভেতরে নয়, বরং কথা বলুন ঘরের বাইরে, খোলা জায়গায়। কেন না, সাম্প্রতিক অন্য এক গবেষণার ফলাফল বলছে যে বদ্ধ জায়গায় কোভিড সংক্রমণের সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি। আমরা সবাই জানি চিন দেশ থেকে এই ভাইরাস খুব অল্প সময়ের মধ্যে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছে। গবেষকরা বলেছেন, চিনদেশের যে মানুষটির থেকে প্রথম সংক্রমণ হওয়া শুরু হয়েছিল, সেটি হয়েছিল শীততাপ নিয়ন্ত্রিত বাস থেকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়ে শেনও জানিয়েছেন যে এই ভাইরাস বায়ুবাহিত হওয়ারই প্রবল সম্ভাবনা, তাঁদের গবেষণা সে রকমই বলছে।

Published by: Akash Misra
First published: October 2, 2020, 12:15 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर