বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

চুরি করতে এসে চোর ডায়াল করল পুলিশের ইমার্জেন্সি নম্বর! তার পর?

চুরি করতে এসে চোর ডায়াল করল পুলিশের ইমার্জেন্সি নম্বর! তার পর?

পুলিশ জানিয়েছে, ওই চোর দু'জনের মধ্যে একজনের বয়স ৪২, অন্যজনের ৪৯। দু'জনেই একটি বাড়িতে ঢোকে চুরি করতে।

  • Share this:

#লন্ডন: চুরি করতে এসে চোরের ফ্রিজ খুলে খাবার খাওয়া বা ঘুমিয়ে পড়ার মতো ঘটনা এর আগে মাঝে মাঝে শোনা গিয়েছে। দ্য বিশপ'স ক্যান্ডেলস্টিকস নাটকে যেমন ভাবে চুরি করতে এসে দুষ্কৃতীর জীবন বদলে যায়, তেমন ঘটনাও নজরে আসে। কিন্তু চুরি করতে এসে নিজেই পুলিশকে ফোন করে নিজেদের গ্রেফতার করানো হয়তো নজিরবিহীন। যদিও সম্প্রতি ইংল্যান্ডের মিডলপোর্ট এলাকায় ঘটল এমনই ঘটনা। ইংল্যান্ডের ইমার্জেন্সি নম্বরে ফোন করে পুলিশ ডাকল দুই চোর।

খবর মোতাবেকে, মিডলপোর্ট এলাকার স্টক-অন-রেন্ট নামের একটি জায়গায় বুধবার সন্ধেয় চুরি করতে এসেছিল দুই চোর। বাড়িতে ঢুকে আরেক চোরকে ফোন করার বদলে তাদের মধ্যে একজন ডায়াল করে ফেলে ৯৯৯। নম্বরটি ইংল্যান্ডের ইমার্জেন্সি পরিষেবার নম্বর। ফোন করা মাত্রই ওই চোর বিশদে সব কথা বলতে শুরু করে আর তাদের সমস্ত কথা শুনে ফোনের ওপারে পুলিশ বুঝতে পারে চুরির কথা। তার পর তড়িঘড়ি এসে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

স্ট্যাফোর্ডশায়ারের পুলিশ জানিয়েছে, ওই চোর দু'জনের মধ্যে একজনের বয়স ৪২, অন্যজনের ৪৯। দু'জনেই একটি বাড়িতে ঢোকে চুরি করতে। কিন্তু তাদের সঙ্গে আরও একজনের যোগ দেওয়ার কথা ছিল। তাকে ফোন করতে গিয়েই ভুল করে এমার্জেন্সি নম্বর ডায়াল করে ফেলে একজন। আর তাতেই সব পরিকল্পনা ভন্ডুল হয়ে যায়।

স্ট্যাফোর্ডশায়ারের পুলিশ আধিকারিক জন ওয়েন, এই দুই চোরকে বিশ্বের সব চেয়ে হতভাগা দুই চোর বলে আখ্যা দিয়েছেন। এ বিষয়ে সকলকে জানাতে একটি ট্যুইট (Tweet)-ও করেন তিনি। সঙ্গে শেয়ার করেন একটি GIF। ক্যাপশনে সংক্ষেপে তিনি পুরো ঘটনাটি বিশ্লেষণ করেন।

https://twitter.com/CIJohnOwen/status/1346940515657396227

দ্য গার্ডিয়ান-এর রিপোর্ট বলছে, এই দুই চোরকে গ্রেপ্তার করার পর একদিন জেলে রাখা হয়। পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

কিন্তু এই ঘটনা এই প্রথম নয়। বেশ কিছু রিপোর্ট বলছে যে, এমন আগেও দেখা গিয়েছে।

২০১৯ সালে আমেরিকায় এমনই একটি ঘটনা ঘটেছিল। দুই ডাকাত একটি দোকানে চুরি করতে এসে ভুল করে ৯১১-এ ডায়াল করে ফেলেছিল। ৯১১ আমেরিকার এমার্জেন্সি নম্বর। ফোনটি পাওয়ার পরই তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

২০১৬ সালে আবার ফ্রান্সের ম্যাকডোনাল্ডস-এ আরেকটি আশ্চর্য ঘটনা ঘটে। হঠাৎই ম্যাকডোনাল্ডস-এর একটি দোকানে ঢুকে হামলা চালায় কয়েকজন দুষ্কৃতী। তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। ফলে ঢুকেই গুলি চালায়। এবং ক্যাশ বাক্স থেকে টাকা নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তারা জানত না যে ওই সময়ে দোকানে বসে পুলিশকর্মীদের একটি দল খাবার খাচ্ছিল। তাই সে দিন তাদের আর টাকা নিয়ে পালানো সম্ভব হয়নি। গেট থেকে বেরোনোর আগেই তাদের ধরে ফেলে পুলিশকর্মীরা।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: January 11, 2021, 11:34 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर