জার্মানিতে লরির তাণ্ডবে মৃত ১২

জার্মানিতে লরির তাণ্ডবে মৃত ১২

বার্লিনে খ্রিসমাসের বাজারে সোমবার আচমকা একটি লরি ঢুকে তাণ্ডব চালাতে শুরু করে ৷

বার্লিনে খ্রিসমাসের বাজারে সোমবার আচমকা একটি লরি ঢুকে তাণ্ডব চালাতে শুরু করে ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বার্লিন: বার্লিনে খ্রিসমাসের বাজারে সোমবার আচমকা একটি লরি ঢুকে তাণ্ডব চালাতে শুরু করে ৷ লরির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের ৷ সোমবার বিকেলর এই ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে ওই এলাকায় ৷ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪৮জন ৷

    পুলিশ ট্যুইটারে জানিয়েছেন, ঘটনায় একজন সন্দেহভাজনকে তারা গ্রেফতার করেছেন ৷ লরিতে উপস্থিত ব্যক্তির ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে ৷ লরির চালক সেখান থেকে চম্পট দিলেও পরে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ৷ তবে ওই ব্যক্তির কোনও দেশের বাসিন্দা তা এখনও স্পষ্ট নয় ৷

    সূত্রের খবর, বেশকিছু তথ্য পাওয়া গিয়েছে যাতে এটাই প্রমান পাওয়া গিয়েছে যে লরির চালক পাকিস্তান বা আফগানিস্তানের বাসিন্দা ৷ ফেব্রুয়ারি মাসে বার্লিনে রেফিউজি হিসেবে তিনি প্রবেশ করেছিলেন ৷

    প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, সোমবার বিকেলে সবাই খ্রিসমাসের বাজার করতে ব্যস্ত ছিল ৷ সেই সময় আচমকা একটা বিকট জোরে শব্দ শোনা যায় ৷ তাকিয়ে দেখা যায়  একটি বিশাল লরি ছুটে এসে দোকান ও মানুষদের পিষে দিচ্ছে ৷ লরিটি দেখে মনে হয়েছিল যে সেটি প্রায় ৪০ কিলোমিটার স্পিডে ছুটছিল ৷

    পুলিশ জানিয়েছেন, আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ৷ ট্যুইটারে বার্লিন পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে যে তারা ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে ৷ তাতে জানা গিয়েছে যে পোলান্ডের একটি কনস্ট্রাকশন সাইট থেকে লরিটি চুরি করে আনা হয়েছিল ৷

    এদিনের হামলায় ফিরিয়ে আনল নিস হামলার স্মৃতি৷ এই একই ভাবে ট্রাক নিয়ে জমায়েতে ঢুকে পড়ে আততায়ী জঙ্গি ৷ বাস্তিল দিবসের অনুষ্ঠানে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয় ৮০ জন নিরীহ মানুষ ৷ একইসঙ্গে ওই ঘটনায় জখমের সংখ্যা ছাড়িয়েছিল ১০০ ৷

    First published: