টিয়া পাখির ‘গৌর-নিতাই’ বলা তো অনেক শুনেছেন, হাঁস এবার বলছে, ‘You Bloody Fool’

australian duck starts imitate human speech scientists working on it- Photo- Representative

টিয়া পাখি মানুষের কথা শুনে তা শিখে বলতে পারে এ তো শতাব্দী প্রাচীন সত্যি৷

  • Share this:

    #সিডনি: টিয়া পাখি মানুষের কথা শুনে তা শিখে বলতে পারে এ তো শতাব্দী প্রাচীন সত্যি৷ বিজ্ঞানীরা এই রকম ভাবে মানুষের গলা নকল করে কথা বলতে পারে এর খোঁজে দীর্ঘদিন ছিলেন৷ এই সূত্র ধরেই খোঁজ পাওয়া অস্ট্রেলিয়ার একটি বিশেষ প্রজাতির হাঁসের৷ সে যেকোনও আওয়াজ বা কথা নিজের গলায় বসিয়ে পারে৷ তাই তাদের কেউ কেউ দরজা বন্ধ করার শব্দ মুখ থেকে বার করছে কেউ আবার বলছে ইউ ব্লাডি ফুল!

    বায়োলজিস্ট ক্যারেল টেন কেট জানিয়েছেন তিনি যা খুঁজে পেয়েছেন তা বিশ্বাস করা কঠিন৷ তাঁর মতে মাস্ক ডাক টিয়ার পাখির ঢঙেই মানুষের গলা নকল করতে পারে৷ তিনি নিজে গিয়ে এটা খুঁজেছেন৷ ১৯৮৭ সালের একটি রেকর্ডিংয়ে তিনি একটি বছর চারেকের হাঁস খুঁজে পেয়েছেন৷ যে তিদবিনবিল্লা নেচার রিজার্ভ ক্যানবেরা -র কাছে থাকে৷

    সে অবিকল মানুষের গলায় বারবার বলেই যাচ্ছিল ইউ ব্লাডি ফু, ইউ ব্লাডি ফু...এল অক্ষরটা খালি তার গলা থেকে বেরোচ্ছিল না, অর্থাৎ হাঁসদের জন্য এল উচ্চারণ করাটা একটু কঠিন৷

    ফিলজফিক্যাল ট্রানজাকশন অফ রয়্যাল সোসাইটি বি-র সোমবার প্রকাশিত জার্নালে বলা হয়েছে সঙ্গমের সময়ে এই ধরণের শব্দ তারা উচ্চারণ করছেন৷

    একটি পুরুষ মাস্ক ডাক নিজের প্রতিপক্ষদের কিস্তিমাত করতে এই ধরণের শব্দের সাহায্য নেয় এবং সেই সময় তাদের লেজটা বিশেষ পজিশনে থাকে৷ পিটার ফুলগার এই রেকর্ডিং করেছিলেন তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে হাঁসগুলিকে উত্তেজিত করছিলেন৷ রিপার নাচতে শুরু করার আগে নিয়মিত হাঁসের আওয়াজ করার বদলে ওই গালাগালি দেওয়া শুরু করে৷ তাদের গলা থেকে আরও নানারকম শব্দ বার হয়৷ এরপর ফুলগার দেখেন হাসটি হালকা দরজা বন্ধের শব্দ করছে৷

    সোনোগ্রাম অ্যানালিস্ট জানিয়েছে এই আওয়াজটা সিঙ্কের কাছের দরজা বন্ধের শব্দের মতো, যেখানে রিপারকে হাসের ছানা হিসেবে রাখা হয়েছিল৷

    টেন কেট বলেছেন এই রিপারটি যে শব্দ করেছে তাতে মনে হয় ছোটবেলায় সে ওই শব্দগুলি শুনেছিল৷ রিপার নিজের কন্ঠে শব্দ তুলে নেওয়ার প্রকাশ দেখিয়েছে যা গায়ক পাখি, হামিংবার্ড ও টিয়া পাখিদের মধ্যে পাওয়া যায়৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: