চিনের ইউহান থেকে নয়, অস্ট্রেলিয়ান বিফ থেকে ছড়িয়েছে করোনা, দাবি WHO-র গবেষকদের

চিনের ইউহান থেকে নয়, অস্ট্রেলিয়ান বিফ থেকে ছড়িয়েছে করোনা, দাবি WHO-র গবেষকদের

  • Share this:

# ওয়াশিংটন: প্রায় এক বছর আগে করোনা সংক্রমণ শুরু হয় বিশ্বে। চিনের ইউহানে প্রথম খোঁজ মেলে করোনা সংক্রমিতের, পরে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এই মারণ রোগ। কোভিড ভাইরাস ছড়ানোর জন্য আমেরিকা-সহ একাধিক দেশ চিনকে দুষতে থাকে। এই ভাইরাসে বর্তমানে কোটি কোটি মানুষ আক্রান্ত এবং লক্ষ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু করোনা আদৌ কোথায় থেকে ছড়িয়েছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা WHO।

তবুও বেশ কয়েকটি দেশ চিনকেই দুষছে। অনেকে বলছেন, চিনের মাছের মার্কেট থেকেই ছড়িয়েছিল এই ভাইরাস। কিন্তু চমকে দেওয়া তথ্য বলছে, ভুল! Daily Mail-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, WHO-র গবেষকদের পরীক্ষায় মিলেছে নতুন তথ্য। তাঁরা দেখেছেন, কোল্ড-চেইন প্রোডাক্টসের মাধ্যমে ছড়িয়েছে এই ভাইরাস। যেমন- অস্ট্রেলিয়ান বিফ।

এই গবেষণায় WHO-র টিমের প্রধান পিটার এমবারেক জানান, চিন থেকেই এই ভাইরাস ছড়িয়েছে কি না সেই নিয়ে পরীক্ষা হয়েছে। দেখা গিয়েছে কোনও ল্যাব থেকে এই ভাইরাস ছড়ায়নি। বদলে খাবার থেকে ছড়িয়েছে এবং দেখা গিয়েছে, এই ভাইরাস চিনে আমদানি করা হয়েছিল। এর পাশাপাশি তিনি এটাও জানিয়ে দেন, এই নিয়ে আর কোনও গবেষণার প্রয়োজন তাঁদের নেই।


২০১৯ -এর অক্টোবরে চিন জানিয়ে দেয় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে SARS-CoV2 ছড়িয়ে পড়েছে। এটাই ছিল বিশ্বে প্রথম করোনা সংক্রমণ। সেই সময়ে বিশ্বের অনেক দেশই হয় তো বুঝতে পারেনি কী পরিণতি আসতে চলেছে! ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে ইতালি ও আমেরিকায় সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে এবং মার্চের শুরুতে ভারতে। করোনা কী দেখিয়েছে, লকডাউনের ফলে কী হয়েছে, আজ তা সকলের জানা। কিন্তু আমাদের দেশে যখন লকডাউন চলছে, তখন চিনে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

আমেরিকা বার বার দাবি করতে থাকে, ইউহান থেকেই ছড়িয়েছে করোনা। উঠে আসে P4 ল্যাবরেটরির নামও। কিন্তু চিন বার বারই এই দাবি খারিজ করতে থাকে। তার পরই এই নিয়ে গবেষণা করতে শুরু করে WHO।

WHO-র এই নতুন রিপোর্টের পর অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্রেগ হান্ট জানিয়েছেন, এমন রিপোর্ট যে আসবে সেটা কোনও সারপ্রাইজের ব্যাপার নয়। মানুষ যখন পশু-খাদ্য খাচ্ছে, তখন সেখান থেকে ভাইরাস মানুষের মধ্যে ছড়াতেই পারে!

Published by:Rukmini Mazumder
First published: