পাকিস্তানে ‘বার্নিং ট্রেন’-এ মৃতের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে, তদন্তের নির্দেশ ইমরান খানের

পাকিস্তানে ‘বার্নিং ট্রেন’-এ মৃতের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে, তদন্তের নির্দেশ ইমরান খানের
  • Share this:

#করাচি: চলন্ত ট্রেনে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ। আগুন তিনটে কামরায়। পাকিস্তানের রহিম ইয়ার খানে কাছে তেজগ্রাম এক্সপ্রেসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দু’পাশে ধান জমি। মাঝখানে শুধুই ধোঁয়ার কুন্ডলি। জ্বলছে তেজগাম এক্সপ্রেসের তিনটি কামরা। ট্রেনটি করাচি থেকে রাওয়ালপিন্ডির দিকে যাচ্ছিল। লাহোর থেকে প্রায় চারশো কিলোমিটার দূরে লিয়াকৎপুর জেলার রহিম ইয়ার খানে ট্রেনটিতে আগুন লাগে। পাক রেলমন্ত্রী শেখ রসিদ জানিয়েছেন, সাধারণ কামরায় গ্যাস জ্বালিয়ে রান্না করছিলেন যাত্রীরা। দুটি সিলিন্ডার ফেটে যায়। তাতে তেল পড়ায় আগুন আরও মারাত্মক চেহারা নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, প্রাণে বাঁচতে চলন্ত ট্রেন থেকে অনেকেই ঝাঁপ মারেন। তবে সিলিন্ডার বিস্ফোরণেই দুর্ঘটনা কিনা, তা নিয়ে ধন্ধ আছে। একটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরা এবং দুটি সাধারণ কামরা মিলিয়ে শ-দু’য়েক যাত্রী ছিলেন। একটি সূত্রে দাবি করা হয়েছে, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় শট-সার্কিট থেকেও আগুন লাগতে পারে। তবে যে ভাবে দাউদাউ করে জ্বলছে তেজগাম এক্সপ্রেস, তাতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণের তত্ত্বই সামনে আসছে। শোকপ্রকাশ করে উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

First published: 04:36:40 PM Oct 31, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर