• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ফের আমেরিকার রোষে চিন! শ্রমিকদের অত্যাচারের অভিযোগে পণ্য আমদানিতে নতুন নিষেধাজ্ঞা

ফের আমেরিকার রোষে চিন! শ্রমিকদের অত্যাচারের অভিযোগে পণ্য আমদানিতে নতুন নিষেধাজ্ঞা

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

চিনের জিনজিয়াং প্রদেশের কোন কোন সংস্থার পণ্যের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল, সেই তালিকাও প্রকাশ করেছে আমেরিকা৷

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: চিনের বিরুদ্ধে ফের একবার কঠোর পদক্ষেপ করল আমেরিকা৷ এবার শ্রমিকদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে চিনের জিনজিয়াং প্রদেশ থেকে সুতো, চুলের সাজ সরঞ্জাম, কম্পিউটারের যন্ত্রাংশ এবং বস্ত্র আমদানির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করল মার্কিন প্রশাসন৷

    আমেরিকার হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ (DHS)-এর তরফে বলা হয়েছে, 'এই পদক্ষেপের মধ্যে দিয়ে বেআইনি এবং অমানবিক ভাবে শ্রম দানে বাধ্য করে চিনে যে পণ্য উৎপাদন করে আমেরিকায় পাঠানো হচ্ছে, তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হল৷ শ্রমিকদের সঙ্গে এই আচরণ আধুনিক যুগে দাস প্রথার নামান্তর৷ এই পণ্যগুলি আমেরিকায় আসার ফলে আমাদের দেশের শ্রমিক এবং ব্যবসারও ক্ষতি হয়৷'

    বিবৃতিতে আরও দাবি করা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার সবসময়ই আমেরিকানদের স্বার্থ সবার আগে দেখবেন৷ শুধু তাই নয়, মানবাধিকারকে লঙ্ঘন করে, এমন কোনও বিষয়কেই প্রশয় দেবে না আমেরিকা৷ শ্রমিকদের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে উৎপাদিত কোনও পণ্যই যে আমেরিকায় আসতে দেওয়া হবে না, সেই কড়া বার্তাও দেওয়া হয়েছে৷

    চিনের জিনজিয়াং প্রদেশের কোন কোন সংস্থার পণ্যের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল, সেই তালিকাও প্রকাশ করেছে আমেরিকা৷ চিনের হেফেই বিটল্যান্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি নামে কম্পিউটারের যন্ত্রাংশ উৎপাদনকারী একটি সংস্থার বিরুদ্ধে শ্রমিকদের কারাগারে বন্দি রেখে শ্রমদানে বাধ্য করার অভিযোগ তোলা হয়েছে৷

    চিনের বিরুদ্ধে অনেক দিন ধরেই উইঘুর সম্প্রদায়ের মানুষকে আটক করে ডিটেনশন ক্যাম্পে পাঠানোর অভিযোগ উঠছে৷ পাশাপাশি তাঁদের ধর্মীয় রীতিনীতি পালনে হস্তক্ষেপ এবং জোর করে তাঁদের ধর্মীয় বিশ্বাস বদলে দেওয়ারও চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: