সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে ফের সাংবাদিক খুন; মৃত আফগান টেলিভিশন সাংবাদিক

সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে ফের সাংবাদিক খুন; মৃত আফগান টেলিভিশন সাংবাদিক

সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে মৃত এক মহিলা সাংবাদিক। চলতি মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সাংবাদিক খুন হল আফগানিস্তানে।

সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে মৃত এক মহিলা সাংবাদিক। চলতি মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সাংবাদিক খুন হল আফগানিস্তানে।

  • Share this:

    #জালালাবাদ: সন্ত্রাসবাদীদের গুলিতে মৃত এক মহিলা সাংবাদিক। চলতি মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সাংবাদিক খুন হল আফগানিস্তানে। একটি টেলিভিশন চ্যানেলে নিউজ অ্যাংকর ছিলেন তিনি। যে চ্যানেলে কাজ করতেন, সেই টেলিভিশন চ্যানেল এনেকাস-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, বৃহপতিবার মালালাই মায়ান্দ এবং তাঁর ড্রাইভারকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

    এই প্রাইভেট টেলিভিশন চ্যানেল থেকে আরও জানানো হয় যে, জালালাবাদের ইস্টার্ন সিটিতে ঘটেছে এই ঘটনা।

    গত কয়েক মাস ধরে, দেশের বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের লক্ষ্য বানিয়ে হত্যা খুবই সাধারণ ঘটনা হয়ে উঠেছে আফগানিস্তানে। যদিও এর আগেই সরকারের তরফ থেকে তালিবানদের সঙ্গে শান্তি বার্তা নিয়ে আলোচনা হয়ে গিয়েছে।

    অধিকাংশ ক্ষেত্রে সন্ত্রাসবাদীদের লক্ষ্য হন সাংবাদিক,পাদ্রি অথবা রাজনৈতিক নেতারা।

    নানগড়ার প্রভিন্সের গভর্নরের পক্ষ থেকে এক মুখপাত্র আতাউল্লাহ খগ্যানি এবং স্থানীয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই হত্যার খবর নিশ্চিত করেছে। গোটা নানগড়ার প্রভিন্সে এবং রাজধানী জালালাবাদে, সরকারি বাহিনী এবং তালিবানদের মধ্যে সংঘর্ষ চলতেই থাকে। এই চরমপন্থী ইসলামিক দলের সৌজন্যে গোটা প্রভিন্সে বেশ কয়েকটি ভয়াবহ হামলা ঘটেছে।

    মালালাই মায়ান্দের বেশ কিছুদিন আগেই হত্যা করা হয়েছিল রেডিও লিবার্টি’র সাংবাদিক আলিয়াস দায়ি’কে। তাঁকে হত্যা করা হয়েছিল গাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে।

    হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সূত্রে খবর মিলেছে, আলিয়াস দায়ি’কে হত্যা করার আগে তাঁকে হুমকি দেওয়া হয় তালিবানদের তরফ থেকে।

    সাংবাদিক হত্যার ঘটনা এই নতুন নয়। গত মাসেও, কাবুলে একজন টিভি চ্যানেলের উপস্থাপককে হত্যা করা হয় গাড়িতে বিস্ফোরন ঘটিয়েই।

    তালিবানদের প্রভাবে দেশে হিংসার ঘটনা বাড়তে থাকায়, আফগান সরকারের অবস্থা যথেষ্ট উদ্বেগজনক। সরকার পক্ষের সঙ্গে তালিবানদের বার বার শান্তিচুক্তি হলেও, তার সুফল আদৌ পাওয়া যায় না।

    Written By : Antara Dey

    Published by:Akash Misra
    First published:

    লেটেস্ট খবর