মা বাবাকে মেরেছিল যে জঙ্গিরা, তাদেরই গুলিতে ঝাঁঝরা করে হত্যা করল মেয়ে

মা বাবাকে মেরেছিল যে জঙ্গিরা, তাদেরই গুলিতে ঝাঁঝরা করে হত্যা করল মেয়ে

Image: Facebook

সেই ঘটনার প্রতিশোধ নিতে মেয়ে হাতে তুলে নেয় বাড়িতে থাকা AK-47 অ্যাসল্ট রাইফেল। মেয়ের বয়স মাত্র ১৬ বছর।

  • Share this:

    #‌কাবুল:‌ প্রতিশোধের আগুন অনেকদিন ধরেই হয়ত জ্বলছিল। কিন্তু এতদিন সামনে লড়াইয়ের সুযোগ হয়নি বলে হয়ত প্রতিশোধ নেওয়া হয়নি। এবার সে প্রতিশোধ নিল। মা বাবাকে হত্যা করার প্রতিশোধ নিল মেয়ে। পাল্টা গুলি করে খতম করল তালিবান জঙ্গিদের। যারা তাঁর মা বাবাকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। আর সেই কারণেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আপাতত সে হিরো। সকলেই বলছেন, জঙ্গিদলকে যোগ্য জবাব দিয়ে মেয়ে। তার সাহসের তুলনা নেই।

    সংবাদসংস্থা এএফপির খবর, কামার গুল নামে এক কিশোরী তাঁর মা বাবার হত্যার প্রতিশোধ নিতে দুই তালিবান জঙ্গিকে গুলি করে হত্যা করেছে। পাশাপাশি তার গুলির আঘাতে আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন জঙ্গি। সরকারের সমর্থক বলে গত সপ্তাহে আফগানিস্তানের গ্রিওয়া গ্রামে বাড়িতে ঢুকে ওই কিশোরীর মা বাবাকে হত্যা করে তালিবান জঙ্গিরা।

    সেই ঘটনার প্রতিশোধ নিতে মেয়ে হাতে তুলে নেয় বাড়িতে থাকা AK-47 অ্যাসল্ট রাইফেল। মেয়ের বয়স মাত্র ১৬ বছর। কিন্তু তাঁর চোখের সামনেই সেদিন গ্রামের বাড়িতে ঢুকে মা বাবাকে বের করে নিয়ে গিয়েছিল তালিবান জঙ্গিরা। তারপর গুলি করে হত্যা করেছিল। সেই ঘটনা সে দেখেছে। আর তারপরই নিয়েছে প্রতিশোধ।

    পুলিশ জানিয়েছে ওই কিশোরী ও তাঁর এক ছোট ভাই রয়েছে। তাঁদের নিরাপদ স্থানে আপাতত নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আপাতত সুস্থই আছে দু’‌জনে। ওই কিশোরীর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় বিপুল পরিমাণে শেয়ার করা হচ্ছে যেখানে বলা হচ্ছে, সে একজন হিরো। মা বাবার মৃত্যুর সঠিক প্রতিশোধ সে নিয়েছে। এই বছরের শুরুতেই আমেরিকা ও তালিবানদের মধ্যে একটি শান্তি চুক্তি হয়। সেই চুক্তি অনুসারে বলা হয়, আফগানিস্তানে শান্তি ফেরাতে দু’‌পক্ষই আপাতত অস্ত্র পরিহার করবে। আমেরিকা ও ন্যাটো ১৪ মাস ধরে ধীরে ধীরে সে দেশ থেকে সেনা সরিয়ে নেবে বলেও বলা হয়। কিন্তু তার মধ্যেও তালিবান জঙ্গিদল চোরাগোপ্তা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: