• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ফাঁকিবাজ ছাত্রদের জুতসই জবাব! শিক্ষক পাঠালেন পরীক্ষার উত্তর নামের ফাইল! আসলে কী ছিল তাতে?

ফাঁকিবাজ ছাত্রদের জুতসই জবাব! শিক্ষক পাঠালেন পরীক্ষার উত্তর নামের ফাইল! আসলে কী ছিল তাতে?

সঙ্গত কারণেই শিক্ষকের এই কায়দা সোশ্যাল মিডিয়া ইউজারদের দারুণ পছন্দ হয়েছে। একজন ছাত্র তার মধ্যে সেরা মন্তব্যটি করেছেন।

সঙ্গত কারণেই শিক্ষকের এই কায়দা সোশ্যাল মিডিয়া ইউজারদের দারুণ পছন্দ হয়েছে। একজন ছাত্র তার মধ্যে সেরা মন্তব্যটি করেছেন।

সঙ্গত কারণেই শিক্ষকের এই কায়দা সোশ্যাল মিডিয়া ইউজারদের দারুণ পছন্দ হয়েছে। একজন ছাত্র তার মধ্যে সেরা মন্তব্যটি করেছেন।

  • Share this:

যে সব ছাত্রছাত্রীরা সারা বছর ফাঁকি দিয়ে কাটায় আর পরীক্ষায় পাশ করার জন্য হয় ফাঁস হয়ে যাওয়া প্রশ্নপত্র, নয় তো টুকলির উপরে নির্ভর করে থাকে, তাদের নানা ভাবেই হেনস্তা করে থাকেন শিক্ষকেরা। পরীক্ষার সময়ে এ সব ধরা পড়লে আর উত্তর লিখতে দেওয়া হয় না। অন্য দিকে, পরীক্ষার আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে গেলে পরীক্ষা স্থগিত রেখে আবার নতুন করে প্রশ্ন সাজানো হয়। এ সব ঘটনারই সাক্ষী থেকেছে আমাদের এই দেশ। কিন্তু এ ছাড়াও কী ভাবে ফাঁকিবাজ ছাত্রছাত্রীদের একহাত নেওয়া যেতে পারে, সেটা প্রমাণ করে দিলেন পশ্চিম গোলার্ধের এক দেশের জনৈক কম্পিউটার সায়েন্সের শিক্ষক। তিনি তাঁর ছাত্রছাত্রীদের একটা স্টাডি প্রেজেন্টেশন ফোল্ডার পাঠিয়েছিলেন। আর সেখানেই রাখা একটা ফাইলের নাম ছিল- Exam answers NOT FOR STUDENTS!

সম্প্রতি শিক্ষকের এ হেন কাণ্ডের কথা Reddit সোশ্যাল মিডিয়া মারফত দুনিয়াকে জানিয়েছেন তাঁরই এক ছাত্র! খবর বলছে যে আপাতদৃষ্টিতে দেখলে মনে হয় ওই ফাইলটা অনিচ্ছাকৃত ভাবে ফোল্ডারের মধ্যে থেকে গিয়েছে। কিন্তু ওটার সঙ্গে লিঙ্ক করা রয়েছে আশির দশকের বিখ্যাত এক গান Never gonna give you Up! বেছে বেছে বিশেষ করে এই গানটি লিঙ্ক করার কারণটা কী?

আসলে রিক অ্যাস্টলের (Rick Astley) এই গানের মধ্যে You know the rules and so do I বলে একটা লাইন রয়েছে! এই লাইনটি তুলে ধরেই ছাত্রছাত্রীদের ফাঁকিবাজি মানসিকতাকে বিদ্রুপ করেছেন ওই শিক্ষক!

যে ছাত্র এই ঘটনার কথা সোশ্যাল  মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন, তিনি জানাতে ভোলেননি ঘটনা তাঁকে কতটা বিস্মিত করেছে! স্টাডি মেটেরিয়াল চেক করতে গিয়ে এমন একটা ফাইল পাওয়া, সেটায় ক্লিক করা আর তার পরে আসল ঘটনা দেখে চোখ কপালে তোলা- সব কিছুই হাসতে হাসতে সবাইকে জানিয়েছেন তিনি!

সঙ্গত কারণেই শিক্ষকের এই কায়দা সোশ্যাল মিডিয়া ইউজারদের দারুণ পছন্দ হয়েছে। একজন ছাত্র তার মধ্যে সেরা মন্তব্যটি করেছেন। লিখেছেন- মন দিয়ে পড়াশোনা করে তিনি শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেবেন যাতে নিজের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গেও এই রসিকতাটি করতে পারেন!

Published by:Elina Datta
First published: