বাড়ির বেসমেন্ট ফিরিয়েছে নব্বই দশকের স্মৃতি, কোয়ারান্টিনে DVD ভাড়া দেওয়ার দোকান খুললেন ব্যক্তি

বাড়ির বেসমেন্ট ফিরিয়েছে নব্বই দশকের স্মৃতি, কোয়ারান্টিনে DVD ভাড়া দেওয়ার দোকান খুললেন ব্যক্তি

বাড়ির বেসমেন্ট ফিরিয়েছে নব্বই দশকের স্মৃতি, কোয়ারান্টিনে DVD ভাড়া দেওয়ার দোকান খুললেন ব্যক্তি!

কথা ছিল কোয়ারান্টিনের সময়ে বাড়ির রান্নাঘর-সহ বেশ কয়েকটি জায়গা ঠিক করে সাজানো হবে। পরিষ্কার করার পাশাপাশি সেগুলি রং করা হবে।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: করোনা কেড়ে নিয়েছে অনেক কিছু। এই মারণ ভাইরাসের আতঙ্কে ঘরবন্দী থাকার সময় অনেকেই নিজেকে নতুন করে খুঁজে পেয়েছেন। লকডাউনে অবসর কাটাতে গিয়ে ব্যস্ততার ভিড়ে চাপা পড়ে যাওয়া পুরোনো শখগুলিকে পূরণ করেছেন। কেউ লিখতে শুরু করেছেন। কারও তুলির ছোঁওয়ায় নতুন করে সেজে উঠেছে ক্যানভাস। তবে আমেরিকার এই ব্যক্তি একটু আলাদা ভাবে সময় কাটিয়েছেন। গৃহবন্দী থাকাকালীন নিজেকে ফিরিয়ে নিয়ে গিয়েছেন নব্বইয়ের জমানায়। আরও একবার সেই স্মৃতিগুলোকে জীবন্ত করে প্রাণ ভরে উপভোগ করেছেন। কারণ, অবসরে নিজের বাড়ির বেসমেন্টে একটি DVD ভাড়া দেওয়ার দোকান খুলেছেন তিনি।

সম্প্রতি ওই ব্যক্তির স্ত্রী TikTok-এ একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। কোয়ারান্টিনে তাঁর স্বামী কী করে বেড়িয়েছেন, তা সবিস্তারে দেখিয়েছেন তিনি। ভিডিওতে তিনি বলেন, কথা ছিল কোয়ারান্টিনের সময়ে বাড়ির রান্নাঘর-সহ বেশ কয়েকটি জায়গা ঠিক করে সাজানো হবে। পরিষ্কার করার পাশাপাশি সেগুলি রং করা হবে। তবে সেই কাজে মন নেই স্বামীর। উল্টে একদম অন্য কিছু করার চেষ্টা করেছেন তিনি। বাড়ির বেসমেন্ট জুড়ে পুরনো দিনের একটি DVD ভাড়া দেওয়ার দোকান খুলেছেন তিনি। ভিডিওটির প্রথমে একটি কাচের দরজা খুলে দোকানের মধ্যে ঢুকতে দেখা যায় তাঁকে। যা মনে করিয়ে দেয় পুরোনো দিনের DVD ভাড়া দেওয়ার দোকানগুলির কথা। ভিতরে ঢুকলেই দেখা মিলবে একের পর এক DVD আর ক্যাসেটের। থরে থরে সাজানো রয়েছে সেগুলি।

ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই নেটিজেনদের মন জিতে নিয়েছে। একাংশের কথায়, নব্বইয়ের জমানায় আমেরিকার সেই জনপ্রিয় DVD স্টোরগুলির কথা মনে করিয়ে দেয় এই ঘটনা। তখনকার দিনের দোকানগুলির মতো এখানেও DVD-র সঙ্গে আকর্ষণীয় সব পোস্টার, ব্যানার, সিনেমার নানা দৃশ্যের ছোট ছোট ছবি সাজানো রয়েছে। দোকানের একদিকে ছোট্ট একটি ক্যাশ কাউন্টার, ঠাণ্ডা পানীয় রাখার একটি ফ্রিজ ও চকোলেটের কৌটো সাজানো রয়েছে। দূর থেকে দেখলে পুরনো দিনের গলির সেই দোকানগুলির কথা মনে পড়ে যায়। DVD-র পাশাপাশি পুরনো VHS টেপও রয়েছে এই স্টোরে।

সময়টা ১৯৮০-৯০। তখন স্মার্টফোন তো দূর অস্ত, হাতে গুনতি কয়েকটি বাড়িতে ল্যান্ড ফোন ও টিভি ছিল। আই প্যাড, ট্যাব, হোম থিয়েটার এগুলি রীতিমতো স্বপ্ন। তখন এই ধরনের DVD ভাড়া দেওয়ার দোকানের রমরমা ছিল। টাকা দিয়ে DVD ভাড়া নিয়ে এসে ঘরে একসঙ্গে সিনেমায় মেতে উঠত সকলে। পরের দিন সেই DVD আবার ফেরত দিতে হত। আজকাল এই দৃশ্য আর চোখে পড়ে না। প্রযুক্তির কৃপায় সব অতীত। গল্পের বইতে কিংবা বড়দের স্মৃতিচারণে জায়গা পেয়েছে এই বিষয়গুলি। তবে আমেরিকার এই ব্যক্তির কাজ যেন সেই স্মৃতিতেই আলতো করে আঁচড় কেটে গেল।

Written By: Sovan Chanda

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:
0

লেটেস্ট খবর