US - Fedex Shooting : আমেরিকায় বন্দুকবাজের হামলায় নিহত ৪ শিখ, সাহায্যের আশ্বাস জয়শঙ্করের

US - Fedex Shooting : আমেরিকায় বন্দুকবাজের হামলায় নিহত ৪ শিখ, সাহায্যের আশ্বাস জয়শঙ্করের

ফেডেক্সের কার্যালয়ে গুলি Photo : Collected

প্রসঙ্গত, ফেডেক্সের কর্মীদের মধ্যে প্রায় নব্বই শতাংশই ভারতীয় বংশোদ্ভূত। ফলে এই হামলার নেপথ্যে বর্ণবিদ্বেষ থাকতে পারে বলেও মনে করছেন তদন্তকারীদের একাংশ।

  • Share this:

    #ইন্ডিয়ানাপোলিস : আমেরিকার ইন্ডিয়ানাপোলিসে বন্দুকবাজের হামলায় নিহতদের মধ্যে রয়েছেন চারজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত শিখ। ইন্ডিয়ানায় ফেডেক্স ফেসিলিটিতে গুলিতে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৮ জনের ৷ শুক্রবার ভোরে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে ৮ জনকে খুন করার করার পর নিজে আত্মঘাতী হয় ১৯ বছরের ব্র্যান্ডন স্কট হোল৷ এই ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। গোটা ঘটনার উপর নজর রাখছে ভারতীয় দূতাবাস।

    শুক্রবার ইন্ডিয়ানাপোলিসের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ক্যুরিয়ার সার্ভিস সংস্থা ফেডেক্সের কার্যালয়ে গুলি চলে। ওই সংস্থাটির কর্মীদের উপর গুলি চালায় ১৯ বছরের ব্রান্ডন হোল নামে এক তরুণ। হামলার পরই আত্মঘাতী হয় ওই বন্দুকবাজ। তবে কী কারণে হঠাৎ ওই ব্যক্তি গুলি চালিয়ে এতজনকে মেরে ফেললেন তা স্পষ্ট করে জানা যায়নি। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    প্রসঙ্গত, ফেডেক্সের কর্মীদের মধ্যে প্রায় নব্বই শতাংশই ভারতীয় বংশোদ্ভূত। ফলে এই হামলার নেপথ্যে বর্ণবিদ্বেষ থাকতে পারে বলেও মনে করছেন তদন্তকারীদের একাংশ। মৃত চার শিখ হলেন অমরজিৎ জোহাল (‌৬৬)‌, জসবিন্দর কৌর (‌৬৪)‌, অমরজিৎ স্কোন (‌৪৮)‌ ও জসবিন্দর সিং (‌৬৮)‌। ঘটনায় আহত হয়েছেন হরপ্রিত গিল। তিনিই প্রথম বুঝতে পেরেছিলেন, যে গুলিবর্ষণ চলছে।

    এই ঘটনায় গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। গোটা ঘটনার উপর নজর রাখছে ভারতীয় দূতাবাস। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে এক বিবৃতিতে বিদেশমন্ত্রী বলেন, "শিকাগোয় আমাদের কনসুলেট জেনারেল সেখানকার মেয়র তথা স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে গোটা ঘটনার উপর নজর রাখছেন।" এর আগে গত মাসের শেষের দিকে দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার একটি অফিস বিল্ডিংয়ে গুলি চলে। সেখানে বন্দুকবাজের হামলায় এক শিশু–সহ ৪ জনের মৃত্যু হয়। তার আগে ২২ মার্চ কলোরাডোর এক দোকানে গুলি চলে, মৃত্যু হয় ১০ জনের। তারও সপ্তাহখানেক আগে জর্জিয়ার আটলান্টায় এক ব্যক্তি, ৮ জনকে গুলি করে মারে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: