corona virus btn
corona virus btn
Loading

এক রাতেই গুলিবিদ্ধ ১৮, মৃত ৪! আমেরিকার সিনসিনাটি শহরে আতঙ্ক, অন্ধকারে পুলিশ

এক রাতেই গুলিবিদ্ধ ১৮, মৃত ৪! আমেরিকার সিনসিনাটি শহরে আতঙ্ক, অন্ধকারে পুলিশ
প্রতীকী ছবি৷

পুলিশ জানিয়েছে, প্রতিটি ঘটনাই এক থেকে দেড় ঘণ্টা অন্তর ঘটেছে৷ যদিও শহরের অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার পল নিউজিগেট দাবি করেছেন, প্রতিটি ঘটনাই বিচ্ছিন্ন এবং পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্ক নেই বলেই তাঁরা মনে করছেন৷

  • Share this:

#সিনসিনাটি: এক রাতের মধ্যেই শহরের একাধিক জায়গায় চলল গুলি৷ যার জেরে আহত হলেন ১৮ জন, তাঁদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে চারজনের৷ আমেরিকার সিনসিনাটি শহরে শনিবার গভীর রাত থেকে রবিবার ভোরের মধ্যে এই গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে৷ পুলিশের প্রাথমিক দাবি, প্রতিটি ঘটনাই বিচ্ছিন্ন৷ তবে কোনও বন্দুকবাজ এই হামলা চালিয়েছে, নাকি অন্য কোনও কারণে এতজন গুলিবিদ্ধ হলেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়৷

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, শনিবার রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ প্রথম গুলি চালানোর খবর আসে অ্যাভোনডেল এলাকা থেকে৷ সেখানে ২১ বছর বয়সি অ্যান্টোনিও ব্লেয়ার নামে এক যুবককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ৷ কিন্তু তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি৷ একই জায়গা থেকে গুলির আঘাত নিয়ে আহত অবস্থায় আরও তিন জনকে উদ্ধার করে পুলিশ৷ রাত ২:৩০টে নাগাদ ফের একবার ওভার দ্য রাইন এলাকা থেকে গুলি চালানোর খবর আসে৷ সেখানে আহত হন ১০ জন৷ তাঁদের মধ্যে একজনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়, আর একজন মারা যান হাসপাতালে৷ মৃত দুই যুবকের বয়স ৩৪ এবং ৩০ বছর৷

এর পাশাপাশি শহরের ওয়ালনাট হিলস এলাকাতেও গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে৷ এর পাশাপাশি পশ্চিম প্রান্ত থেকেও রবিবার ভোরে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে বলে খবর৷ সেখানেও একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতে দাবি করা হচ্ছে৷

পুলিশ জানিয়েছে, প্রতিটি ঘটনাই এক থেকে দেড় ঘণ্টা অন্তর ঘটেছে৷ যদিও শহরের অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার পল নিউজিগেট দাবি করেছেন, প্রতিটি ঘটনাই বিচ্ছিন্ন এবং পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্ক নেই বলেই তাঁরা মনে করছেন৷ তবে কারা এই ঘটনার জন্য দায়ী, সে বিষয়ে প্রাথমিক ভাবে অন্ধকারেই পুলিশ৷ শহরের মেয়র জন ক্র্যানলি স্বীকার করে নিয়েছে, শহরের বাসিন্দাদের কাছে বন্দুক বা আগ্নেয়াস্ত্র রাখাটা অত্যন্ত সহজলভ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ করোনা অতিমারির জন্য এখন পানশালাগুলি বন্ধ৷ ফলে নিজেদের বাড়িতে বা ব্যক্তিগত জায়গাতেই পার্টি করার জন্য নিয়মিত জড়ো হচ্ছেন অনেকে৷ সেখানেই এই ধরনের হিংসাত্মক ঘটনা ঘটছে বলে অনুমান তাঁর৷ ফলে আপাতত এই ধরনের পার্টিতে গিয়ে নিজেদের প্রাণ সংশয় না করার জন্য শহরবাসীর কাছে অনুরোধ করেছেন তিনি৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 17, 2020, 9:22 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर