পুলওয়ামা জঙ্গি হানা নিয়ে পাকিস্তানকে তথ্য-প্রমাণ দিতে তৈরি হচ্ছে নয়াদিল্লি

পুলওয়ামা জঙ্গি হানা নিয়ে পাকিস্তানকে তথ্য-প্রমাণ দিতে তৈরি হচ্ছে নয়াদিল্লি
Photo Collected
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী প্রমাণ চান। নয়াদিল্লি তাই দেবে। বিশ্বের কাছে পাকিস্তানের মুখোশ খুলে দিতে তথ্য-প্রমাণ তৈরি করছে ভারত। ইসলামাবাদকে কড়া বার্তা দিয়েছে মার্কিন সরকারও। বলেছে, দোষী যেই হোক, যেন শাস্তি পায়। এর আগে বার বার ইসলামাবাদের হাতে তথ্য-প্রমাণ তুলে দিয়েছে নয়াদিল্লি। কিন্তু, তাতে কোনও লাভ হয়নি। এবার পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পরেও পাকিস্তানের গলায় সেই পুরোন কাসুন্দি। পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ-মহম্মদ হামলার দায় স্বীকারের পরেও পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলছেন, তাঁর নাকি তথ্য-প্রমাণ চাই। সেই মতোই কোমর বাঁধছে ভারত। পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার অজয় বিসারিয়া এবং আমেরিকায় নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রীংলার সঙ্গে বুধবার বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

সূত্রের খবর, কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার নেপথ্যে যে পাকিস্তানের হাত রয়েছে সেই সংক্রান্ত তথ্য-প্রমাণ-সহ নথি তৈরি করে সে দেশে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত অজয় বিসারিয়ার হাতে তা তুলে দেওয়া হবে। যাতে ইসলামাবাদ আর বলতে না পারে, তাদের প্রমাণ দরকার। একই নথি দেওয়া হবে আমেরিকা-সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হাতে। লক্ষ্য একটাই, বিশ্বের সামনে পাকিস্তানের মুখোশ খুলে দেওয়া। যাতে তারা সাফাই না দিতে পারে।অনেকে মনে করেন, ইসলামাবাদের হাতে তথ্য-প্রমাণ তুলে দিলে নতুন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকেও মুখের উপর জবাব দেওয়া যাবে।

আরও পড়ুন মাত্র একটা ফোন-কল ! বিপদ থেকে বাঁচার সহজ উপায় নিয়ে এল সরকার

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার পর চিন ছাড়া বিশ্বের সমস্ত দেশকেই পাশে পেয়েছে ভারত। মঙ্গলবার ফ্রান্সের তরফে নয়াদিল্লিকে বার্তা দেওয়া হয়, জইশের মাথা মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দেওয়ার দাবিতে তারা রাষ্ট্র সংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সরব হবে। এই দাবি অনেক দিন ধরেই তুলছে ভারত। কিন্তু, বারবারই তা ধাক্কা খায় চিনের প্রাচীরে। চিন প্রতিবারই পাশে দাঁড়ায় পাকিস্তানের। এবারও তাদের একই অবস্থান। তবে, নয়াদিল্লি হাল ছাড়তে রাজি নয়। ভারত সমর্থন পেয়েছে ব্রিটেন ও রাশিয়ার। দুই দেশই বুঝিয়ে দিয়েছে, সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় তারা ভারতের পাশে।

ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে আমেরিকাও। পুলওয়ামার জঙ্গি হামলাকে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।ট্রাম্প সরকারের দাবি, তারা পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দিয়ে জানিয়েছে, ইসলামাবাদ যেন পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার তদন্তে পূর্ণ সাহযোগিতা করে করে এবং যেই দোষী হোক তাকে যেন শাস্তি দেয়। নিউজিল্যান্ডকেও পাশে পেয়েছে ভারত। একমাত্র সে দেশের সংসদেই পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার নিন্দা করে প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে।

আরও দেখুন
First published: February 21, 2019, 7:56 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर