Home /News /howrah /
Howrah News: একসময়ের নির্ভরযোগ্য খাল এলাকায় অভিশাপ, ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ অতিষ্ট গ্রামের মানুষ

Howrah News: একসময়ের নির্ভরযোগ্য খাল এলাকায় অভিশাপ, ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ অতিষ্ট গ্রামের মানুষ

খালের [object Object]

দূষিত খালের জলে সংস্পর্শে এলে দেখা দিচ্ছে চুলকানি ঘা এর মত চর্ম রোগ, সমস্যায় সাঁকরাইল ব্লকের উলা গ্রামের মানুষ।

  • Share this:

    #হাওড়া: খালের জল দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে অতিষ্ঠ গ্রামের মানুষ। উত্তরে হুগলী হয়ে ডোমজুড় পেরিয়ে সাঁকরাইল সারেঙ্গায় এসে নদীতে মিশেছে একটি খাল। এই খাল অনেকেই বড়জোড়া খাল নামে চেনেন। সাঁকরাইল ব্লকের উত্তরে থেকে কলোড়া, ধুলাগর, নলপুর, রঘুদেববাটি, সারেঙ্গা, এই সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার উপর দিয়ে বয়ে গেছে খাল। ওই সমস্ত এলাকার হাজারো পরিবার নির্ভরশীল খালে, বিস্তীর্ণ এলাকার চাষ আবাদের জলের ভরসা এই খাল।

    চাষের মাঠ পেরিয়ে ঘন জনবসতি মাঝ দিয়ে বয়ে গেছে খাল, ফলে খালের দুই পারে বসতি মানুষের গৃহস্থলীর নানান কাজে লাগত খালের জল। খালটি চওড়ায় প্রায় ৪০ থেকে ৫০ ফুট, কয়েক বছর আগে খালের জলে দেখা যেত বিভিন্ন প্রজাতির প্রচুর মাছ। তার মধ্যে চিংড়ি, প্যাকাল, শোল, শাল, বোয়াল, ন্যাদাস বিভিন্ন মাছ, বহু মানুষ খাল থেকে মাছ ধরেকরে তাদের জীবিকা নির্বাহ করত। এখন সেভাবে আর মাছের দেখা মেলে না।

    আরও পড়ুনঃ বিপদের কারণ ত্রিফলা! কিভাবে? জেনে নিন...

    আগে এই খালের জলে খেলতো জোয়ার ভাটা। এই খাল মানুষের কাছে কতখানি গুরুত্ব ছিল তা এলাকায় গেলে দেখা যায়। খাল সংলগ্ন প্রতিটি বাড়ির খালের সঙ্গে যোগাযোগ একটি করে ঘাটের মাধ্যমে। সেই ঘাট ব্যবহার করেই নদীর জলে স্নান, বাসন মাজা, কাপড় কাচা চলত। প্রায় প্রতিটি পরিবার খালের জল ব্যবহার করত, সাঁকরাইল ব্লকের নলপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত উলা গ্রামের বাসিন্দারা জানায় ঝকঝকে তরতরে জল রান্নার কাজেও লাগতো তখন।

    বর্তমানে খাল নাব্যতা হারিয়েছে, খেলেনা জোয়ার ভাটা, স্থানীয় মানুষের অভিযোগ দিন দিন কারখানার অপরিশোধিত নোংরা আবর্জনা ব্রজ্য ক্যামিক্যাল মিশে জল কালো বা তামাটে বর্ণ। প্রায় ৮-১০ বছর একবারেই ব্যবহারের অযোগ্য, বর্ষায় জল বাড়লে সমস্যাও বেড়ে যায়, বেশ কিছু মানুষের। খাল সংলগ্ন বাড়িতে প্রবেশ করে খালের নোংরা জল। চাষ আবাদি মানুষজন জানায়, দূষিত জল চাষের কাজে ব্যবহার করলে জমির উর্বরতা কমে যায়। মাঝেমধ্যেই দেখা যায় খালে মাছ মারা পড়ছে, আবার বিষাক্ত জলে টিকতে পারছেনা জিওল মাছ, মাঝেমধ্যেই দেখা যায় ডাঙ্গায় উঠে ছটফট করছে। খালের নোংরা জল থেকে পচা দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে, খালের পার্শ্ববর্তীতে বসবাসকারী মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে পচা দুর্গন্ধে।

    আরও পড়ুনঃ সমাজ সচেতনতার প্রচারে প্রধান মুখ ছাত্র-ছাত্রী, মিলছে সুফল

    এ প্রসঙ্গে সাঁকরাইল বিডিও নাজিরুদ্দিন সরকার জানান, বড়জোড়া খাল ইরিগেশন দফতরের অধীনস্থ। এ বিষয়ে ইরিগেশন দফতরকে জানানো হয়েছে, বিডিও নিজে এলাকা পরিদর্শন করবেন, দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস।

    রাকেশ মাইতি

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Howrah

    পরবর্তী খবর