হেলিকপ্টার-স্পেশাল সেল-ব্যক্তিগত সহায়ক, ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত গডম্যান রাম রহিম কার নির্দেশে VIP খাতির পাচ্ছে জানেন?

হেলিকপ্টার-স্পেশাল সেল-ব্যক্তিগত সহায়ক, ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত গডম্যান রাম রহিম কার নির্দেশে VIP খাতির পাচ্ছে জানেন?

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 27, 2017 09:10 AM IST
হেলিকপ্টার-স্পেশাল সেল-ব্যক্তিগত সহায়ক, ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত গডম্যান রাম রহিম কার নির্দেশে VIP খাতির পাচ্ছে জানেন?
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 27, 2017 09:10 AM IST

#রোহতক: গ্রেফতার হওয়ার পর ৪৩ লক্ষ টাকা দিয়ে হেলিকপ্টার ভাড়া করে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় গুরু রাম রহিমকে। মেয়েকে নিয়ে জেলে ঢোকার সময় বাবার সঙ্গে ছিল দুটি পেল্লাই বিদেশি সুটকেস। তাতে ছিল সুগন্ধী, চকোলেট আর বিদেশি সিগারেট। আর সেই সুটকেস হাতে করে বাবার সেলে পৌঁছে দেন অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল। এহেন ভিআইপি কয়েদি জেলেও যে বাড়তি সুবিধা পাবেন তাতে আর আশ্চর্য কি? অভিযোগ, রাম রহিমের মেয়ের নির্দেশেই মেনেই ভিআইপি ট্রিটমেন্ট দেওয়া হচ্ছে বাবাকে।

Papa's Angel। এভাবেই নিজের পরিচয় দিয়ে থাকেন হানিপ্রীত ইনসান। রাম রহিমের বড়মেয়ে। সিনেমা হোক কি প্রোমোশনাল ভিডিও, বক্তৃতা থেকে ডেরা সাচার সম্মেলন - সবসময়ই বাবার পাশে থাকেন হানিপ্রীত। পরিচালক, গায়ক, মোটিভেনশাল স্পিকার, সমাজসেবী, ব্যবসায়ী ও চিত্রশিল্পী - এভাবেই নিজের পরিচয় দেন হানিপ্রীত। তার নির্দেশেই জেলে রাম - রহিম ভিআইপি খাতির পাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠল।

জেলের খুব কাছেই হোটেলে উঠেছেন হানিপ্রীত ৷ শুক্রবার নির্দিষ্ট সময়ের অনেক পরে জেল থেকে বেরোন বলেও অভিযোগ ৷ তার নির্দেশে জেলে আনা হচ্ছে পাঁচতারা হোটেলের খাবার ৷ জেলের কর্মীদের ওপরও চাপ দিচ্ছেন বলে অভিযোগ ৷ বাবার জন্য নিয়োগ করা হয়েছে একজন সহায়ক ৷ দেওয়া হচ্ছে মিনারেল ওয়াটার, চকোলেট, কফি ৷ তার সেলে লাগানো হয়েছে এসি ৷ কেনা হয়েছে তোষক ও বালিশ ৷

_16d7aaea-8a8b-11e7-a194-d8b7abb7611c

ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু যে অন্যদের থেকে আলাদা, তা শুক্রবারই স্পষ্ট হয়েছিল।

Loading...

হেলিকপ্টারে করে জেলে

ভিআইপি খাতির

মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে ঢুকলেন

সঙ্গে গেল সুটকেসও

কয়েদি নম্বর ১৯৯৭ হিসেবে বিশেষ সেলে ঠাঁই হয়

Gurmeet-Ram-Rahim-Singh-Honeypreet-Insan-EXCLUSIVE-Interview-For-Hind-Ka-Napak-Ko-Jawab-MSG-Lionheart-2-VDO

জেলে বাবার সুটকেস বইছিলেন যিনি, তিনি যে সে কেউ নন। রাজ্যের অতিরিক্ত অ্যাডভোটেক জেনারেল। সেকথা প্রকাশ্যে আসতেই শনিবার সরিয়ে দেওয়া হয় তাকে।

অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল গুরদাস সিং সালয়ারা রাম রহিমের ভক্ত

রাজ্যের অনুমোদন না নিয়েই জেলে গিয়েছিলেন তিনি

রাম রহিমের সুটকেশ তার সেলে পৌঁছে দেন

জেল আধিকারিকদের বাবার দেখাশোনা করতে অনুরোধ করেন

হরিয়ানার একটি স্থানীয় সংবাদপত্রে এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হতেই আলোড়ন পড়ে যায়। বাবাকে ভিআইপি ট্রিটমেন্টের কথা অস্বীকার করে প্রশাসন।

বাবা রাম রহিমের ভক্তের তালিকা কম লম্বা নয়। জেলে নাকি তার পায়ে হাত দিয়ে প্রণামও করছেন জেলকর্মী ও আধিকারিকরা। বিতর্ক এড়াতে শনিবার বিকেলে নতুন নির্দেশ দেন কারা দফতরের ডিজি। এখানে বলা হয়, প্রয়োজন ছাড়া কোনও জেলকর্মী বাবার সেলে যেতে পারবেন না। দুপুরের পর রাম - রহিমের জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তা প্রত্যাহারেরও নির্দেশ দেওয়া হয়। এত কিছুর পরও অভিযোগ ওঠা বন্ধ হচ্ছে না। কয়েকটি ছবিই অনেক কথা বলে দিচ্ছে।

First published: 09:10:31 AM Aug 27, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर