হোম /খবর /হুগলি /
চৈত্রের সেলেও মাছি তাড়াচ্ছে ধনেখালির তাঁত সমবায়

Hooghly News: বদলেছে সময়, বদলেছে স্টাইল স্টেটমেন্ট, চৈত্রের সেলেও মাছি তাড়াচ্ছে ধনেখালির তাঁত সমবায়

X
তাঁতে [object Object]

কটা সময় ছিল যখন প্রত্যেক বাঙালি বাড়ির বউরা পয়লা বৈশাখে তাঁতের শাড়ি পরতেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে স্টাইল স্টেটমেন্টেও পরিবর্তন এসেছে । এখন তাঁতের শাড়ি প্রায় অতীত। 

  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

হুগলি: সামনেই পয়েলা বৈশাখ! নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে নতুন পোশাকে মেতে ওঠেন মানুষজন। একটা সময় ছিল যখন প্রত্যেক বাঙালি বাড়ির বউরা পয়লা বৈশাখে তাঁতের শাড়ি পরতেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে স্টাইল স্টেটমেন্টেও পরিবর্তন এসেছে । এখন তাঁতের শাড়ি প্রায় অতীত।  তার প্রভাব পড়েছে তাঁত শিল্প ও তাঁত সমবায়গুলিতে।

হুগলির ধনিয়াখালি বিখ্যাত তাঁত শিল্পের জন্য। চৈত্র মাসে তাঁত সমবায়গুলিতে বিশেষ ছাড় দেওয়া হয় কাপড় কেনার জন্য। তবে দেখা নেই কোন খরিদ্দারের। বসে বসে মাছি তাড়াচ্ছে তাঁত সমবায়গুলি। একটা সময় চৈত্র সেলে সমবায়গুলিতে পা রাখার জায়গা পাওয়া যেত না। শুধুমাত্র জেলার মানুষ নয়, রাজ্য তথা দেশের নানা প্রান্ত থেকে তাঁত সমবায়গুলি থেকে ধনিয়াখালির তাঁত কিনতে ভিড় জমাত বহু মানুষজন।

ধনিয়াখালির তাঁত শিল্পর সঙ্গে যুক্ত এক তাঁতী বলেন, 'একটি শাড়ি তৈরি করতে সময় লাগে কম করে তিন দিন। দুইজন মানুষের পরিশ্রমে তৈরি হয় গোটা একটি তাঁতের শাড়ি । তবে এত পরিশ্রম করেও মজুরি মেলে না ঠিকঠাক। তাই আগামী প্রজন্মের কেউই আর আসতে চাইছেন না এই শিল্পে।''

এক সমবায়ের সদস্য বলেন, 'কাপড়ের উপর ১৫ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়েছে, তবুও দেখা নেই কোনও খরিদ্দারের। স্থানীয় মানুষের হাতে টাকা পয়সা কম থাকায় তাঁরা আসতে চাইছেন না সমবায় থেকে কাপড় কিনতে।'

রাহী হালদার

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Hooghly news