চন্ডীগড় অনুসরণ কাণ্ডে প্রকাশ্যে ‘হারানো’ সিসিটিভি ফুটেজ, সামনে বিজেপি নেতার ছেলের ‘কীর্তি’

চন্ডীগড় অনুসরণ কাণ্ডে প্রকাশ্যে ‘হারানো’ সিসিটিভি ফুটেজ, সামনে বিজেপি নেতার ছেলের ‘কীর্তি’

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 08, 2017 11:45 AM IST
চন্ডীগড় অনুসরণ কাণ্ডে প্রকাশ্যে ‘হারানো’ সিসিটিভি ফুটেজ, সামনে বিজেপি নেতার ছেলের ‘কীর্তি’
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 08, 2017 11:45 AM IST

 #চণ্ডীগড়: আইএএস আধিকারিকের মেয়ে বর্ণিকা কুণ্ডু-র গাড়িকে কিভাবে ধাওয়া করেছিলেন বিকাশ বারালা ও তাঁর বন্ধুরা তা এবার একদম দিনের আলোর মতো পরিষ্কার ৷ চণ্ডীগড় অনুসরণ কাণ্ডে পুলিশ ঘটনাস্থলের আশেপাশে লাগানো পাঁচটি ক্যামেরার সিসিটিভি সংগ্রহ করে ৷ সেই সিসিটিভি ফুটেজই এবার প্রকাশ্যে ৷ প্রথমে যদিও পুলিশ দাবি করেছিল, কোনও সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়া যাচ্ছে না ৷

সুভাষের ছেলে বিকাশ বারালার বিরুদ্ধে এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে কয়েকদিন আগে রাতে গাড়িতে হরিয়ানার এক আইএএস অফিসারের মেয়ে বর্ণিকার গাড়ির পিছু নিয়ে হেনস্থার অভিযোগ ওঠে। চণ্ডীগড়ের রাস্তায় গাড়ি নিয়ে বর্ণিকা কুণ্ডুর পিছু নিয়েছিল হরিয়ানার বিজেপি প্রধান সুভাষ বারালার ছেলে বিকাশ বারালা। আর সেই দিনের ঘটনাকেই ফেসবুকে ব্যক্ত করেছিলেন বর্ণিকা ৷ পুরো ঘটনাকে ‘কিডন্যাপ’-এর সঙ্গেই তুলনা করেছিলেন বর্ণিকা ৷

সিসিটিভি সামনে আসতে স্পষ্ট কী ভয়ঙ্করভাবে অভিযুক্তরা সেদিন বর্ণিকাকে ধাওয়া করেছিলেন ৷ এই মামলায় প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও অভিযুক্তের বিরুদ্ধে লঘু ধারায় মামলা দায়ের করায় পুলিশি নিস্ক্রিয়তার প্রশ্ন উঠেছে ৷ বিকাশকে গ্রেফতার করে জামিনে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এই নিয়েই উত্তপ্ত রাজনৈতিক মহল ৷ চণ্ডীগড়ে আইএএসের মেয়েকে অপহরণের চেষ্টার ঘটনায় নয়া মোড়। মূল অভিযুক্ত বিজেপির সভাপতির ছেলের জামিন ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। লঘু ধারায় অভিযোগ থাকায় বিজেপি নেতা সুভাষ বরালার ছেলে বিকাশ বরালা জামিন পেয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় বিজেপিকে বিঁধেছে কংগ্রেস।

অন্যদিকে, অভিযোগকারিণী বর্ণিকা কুণ্ডুকে জড়িয়ে সোশ্যাল সাইটে অপমানজনক পোস্ট করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ। বর্ণিকার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করা লেখা হয়েছে, ঘটনার দিন মত্ত অবস্থায় ছিলেন তিনি। যদিও, পরে ওই পোস্ট মুছে দেওয়া হয়। এমনকি বিকাশ বরালার কুকীর্তি ধামাচাপা দিতে সিসিটিভির ফুটেজও সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে ।

যদিও চণ্ডীগড় পুলিশের দাবি তদন্তে কোনও গড়িমসি হয়নি। কোনও রাজনৈতিক চাপ নেই। যদিও বিরোধীদের দাবি, বিজেপি সভাপতির ছেলে হওয়ায় হরিয়ানা পুলিশ-প্রশাসন বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চাইছে। অভিযোগ কংগ্রেস নেতা রণদীপ সুরযেওয়ালা।

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টার গতকালই সুভাষ বারালার রাজ্য বিজেপি প্রধানের পদ থেকে ইস্তফার দাবি খারিজ করে দেন। আইএএস অফিসারের মেয়েকে হেনস্থার ঘটনার সঙ্গে তাঁর কোনও যোগ নেই, এটা স্রেফ একজন ব্যক্তির ব্যাপার, অভিযুক্ত দোষী প্রমাণিত হলে আইন মতোই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু তাতে ক্ষোভ দূর হচ্ছে না। আর একই পরিপ্রেক্ষিতে রামবীর ভাট্টি মন্তব্য করেন, ‘ওই মেয়েটা কেন অত রাতে রাস্তায় ঘুরছিল ৷ মেয়েদের অত রাতে বাড়ির বাইরে থাকা উচিত নয় ৷’

নিউজ১৮কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বর্ণিকা স্পষ্ট জানান, ‘আমি কোনও ভুল করিনি, আমি কেন ভয় পাব ৷ উল্টে আমার সঙ্গে ভুল হয়েছে ৷ আমার পুরো সিস্টেমের ওপর ভরসা আছে ৷ আশা করছি, এর ঠিকঠাক বিচার পাব ৷ আর এর ফলে শুধু আমি নয়, আমার মতো মেয়েরা নিশ্চিন্তে বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারবে ৷ ’

First published: 11:45:34 AM Aug 08, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर