জাপানি মেয়ের গলায় বাউল গান ! স্পষ্ট বাংলা, দরাজ গলা ! মুহূর্তে ভাইরাল

জাপানি মেয়ের গলায় বাউল গান ! স্পষ্ট বাংলা, দরাজ গলা ! মুহূর্তে ভাইরাল
photo source facebook

১৯৯১ সালে জাপানেই তিনি একটি অনুষ্ঠানে সাধন দাসের গান শুনে ভেবে নিয়েছিলেন তিনি বাউল হবেন। তারপর সোজা কলকাতা।

  • Share this:

#কলকাতা: বাউল। এমন একটা শব্দ যা শুনলেই মনের মধ্যে একতারার সুর বেজে ওঠে। সংসারের উচাটন ছেড়ে বিবাগি বাউল হতে মন অনেক কিছুই করতে পারে। বাউল গানের টানে সব কিছু ছেড়ে মজে রয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় গায়িকা অনুশে আনাদিল। এমন অনেকেই আছেন যারা এ দেশের না হয়েও ভালবাসার টানে রয়ে গিয়েছেন বাউল হয়ে। লালন ফকিরে মন মজলে সে মন আর অন্য কোথাও আটকাতেই চায় না। যেমন পবন দাস বাউলকে ভালবেসে থেকে গিয়েছেন মিমলু। তেমনই আর এক বাউলকে, গানকে ভালবেসে জাপান ছেড়ে এ দেশে এসে থেকে গেলেন মাকি কাজুমি। জাপানেই তাঁর বেড়ে ওঠা, পড়াশুনো। প্রেমে পড়েন বাউল গানের। প্রেমে পড়ে যান বাউলের।

সাধন দাস বৈরাগ্যকে ভালবেসে ফেলেন কাজুমি। তারপর এখানেই থেকে যান তিনি। বাউল গান শেখেন, বাংলা শেখেন। তারপর বিয়ে করেন সাধন দাস বৈরাগ্যকে। ১৯৯১ সালে জাপানেই তিনি একটি অনুষ্ঠানে সাধন দাসের গান শুনে ভেবে নিয়েছিলেন তিনি বাউল হবেন। তারপর সোজা কলকাতা। শহরের কোলাহল ছেড়ে সাধনকে গুরু মেনে গান ও জীবনের মানে বুঝতে শুরু করেন। তারপর শিখে ফেলেন বাংলাও। এই মাকি কাজুমির একটি গান ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। খোলা ও দরাজ গলায় স্পষ্ট বাংলায় তিনি গান গাইছেন 'মন চলো যাই এমন এক দেশে।' কাজুমি এখন আর শহরে আসতে চান না। গ্রাম আর মাটির গানই তাঁর সব কিছু। কিন্তু ভাল গানের গলা কাজুমিকে বিখ্যাত করেছে। আজ তিনি নানা উৎসবে বাংলা ভাষায় গানও গান জমিয়ে। কে বলবে এই মেয়ে জাপানি।

First published: 08:26:21 PM Dec 14, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर