মুক্তির অপেক্ষায় ‘রবিবার’

মুক্তির অপেক্ষায় ‘রবিবার’
  • Share this:

Arumina Dey

#কলকাতা: রবিবার নিছক একটা ছুটির দিন। কারও কাছে শুধুই অবসর। অতনু ঘোষের কাছে মন অনুসন্ধান। একটু জটিল লাগছে। সহজ করে বলা যাক। পরিচালক অতনু ঘোষের আগামী ছবি ‘রবিবার’। এই ছবিতে প্রথম জুটি বাঁধছেন প্রসেনজিৎ-জয়া। নন্দনে করা হল ছবির ট্রেলর রিলিজ। হাজির পরিচালক সহ কলাকুশলী।

ঝলক দেখলে ছবিটি থ্রিলর বলে মনে হতে পারে। তবে অতনুর কথায়, ছবিটি একাকীত্বের ছবি। মনের জটিলতা এবং বিভিন্ন স্তরের কনফিলক্ট-এর গল্প বলে ‘রবিবার’।

দুই প্রাক্তন-প্রাক্তনী। একটি ‘রবিবার’-এ তাদের দেখা হয়। সারাদিন ধরে তাদের জীবনের ঘটনা প্রবাহকে ঘিরেই এগিয়েছে ছবির গল্প। ‘ময়ূরাক্ষী’ করার সময় থেকেই অতনু ঘোষের ইচ্ছে ছিল একাকীত্ব নিয়ে আরও দু’টি ছবি করবেন। ‘ময়ূরাক্ষী’, ‘রবিবার’ এবং ‘বিনিসুতো’ পৃথক গল্প হলেও নির্যাস এক। পরিচালক অতনু ঘোষ মনে করেন এই আরবান লাইফস্টাইলে সকলেই খুব একা। কোনও না কোনও ভাবে একা। সেই কঠিন বাস্তবকেই বার বার নিজের ছবিতে তুলে ধরতে চেয়েছেন পরিচালক।

জয়ার অনেক দিনের ইচ্ছে বুম্বাদার সঙ্গে কাজ করার। প্রসেনজিৎ-ও জয়ার কাজ খুব পছন্দ করেন। একসঙ্গে কাজ করার জন্য খুঁজচ্ছিলেন একটা মানানসই চিত্রনাট্য। যেখানে অভিনয় করে দু’জনেরই অভিনয় সত্ত্বা তৃপ্ত হবে। ‘রবিবার’-এর চিত্রনাট্যে সেই সমস্ত উপাদানই ছিল। জয়া উচ্ছ্বসিত প্রসেনজিতের সঙ্গে কাজ করে। প্রসেনজিৎ-ও জয়ার সঙ্গে অভিনয়ের টক্কর বেশ উপভোগ করেছেন। তবে প্রসেনজিতের কথায়, এই ছবিটা ভীষণ কঠিন একটা ছবি। সেরকম কোনও গল্প নয়, মুহূর্তের ওপর নির্ভর করে ‘বরিবার’।

ছবিতে প্রসেনজিতের চরিত্রের নাম অসীমাভ। জয়ার নাম সায়নী। ‘রবিবার’-এর সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন দেবজ্যোতি মিশ্র। ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোরে বৈচিত্র রয়েছে বলে দাবি পরিচালক-সঙ্গীত পরিচালকের। ছবির টিজার বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। ‘রবিবার’ নিয়ে কৌতূহল আছে বলা যায়। শনিবার সন্ধেতে ‘রবিবার’-এর ট্রেলর লঞ্চে এসে সকলেই মুগ্ধ হলেন। দর্শকের মনে কতটা জায়গা করে নেবে এই ছবি তা বলবে সময়। ২৬ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে ‘রবিবার’।

First published: 07:26:29 PM Nov 30, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर