শুভশ্রী আমার লেডি লাক নয়, ও আমার ফুল লাক, বললেন রাজ চক্রবর্তী

শুভশ্রী আমার লেডি লাক নয়, ও আমার ফুল লাক, বললেন রাজ চক্রবর্তী

তবে কাকতালীয় হোক আর বাস্তব, সত্যি বলতে কী রাজের জীবনের গোটা গল্পটাই কেমন যেন বদলে গেল বিয়ের পর থেকে।

  • Share this:

SREEPARNA DASGUPTA #কলকাতা: তাঁর শুধু নামটাই রাজ নয়। নামের সার্থকতা কাকে বলে তা বেশ ভাল করেই এই ক’দিনে বুঝিয়ে দিয়েছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। কিছু মাস আগেই মুক্তি পেয়েছে তাঁর ছবি ‘পরিণীতা’। রাজ কতটা পরিণত ঠিক এই একটা ছবি দিয়েই বুঝিয়ে দিয়েছেন। নিন্দুকেরা যাই বলুক না কেন, কপি-পেস্ট ছাড়াও ‘অরিজিনাল ক্রিয়েশানে’ও যে তিনি পরদর্শিতা দেখাতে পারেন ‘পরিণীতা’ তারই প্রমাণ।

তবে কাকতালীয় হোক আর বাস্তব, সত্যি বলতে কী রাজের জীবনের গোটা গল্পটাই কেমন যেন বদলে গেল বিয়ের পর থেকে। ‘পরিণীতা’র গল্প যখন হাতে পান তখনই ঠিজ করে ফেললেন এই গল্পে ছবি বানাতেই হবে। কিন্তু অনেক প্রযোজকের দরজায় গিয়েও ফিরতে হচ্ছিল ৷ কেউ বিশেষ পাত্তা দেননি। শেষমেষ নিজের প্রডাকশন হাউজ থেকেই বানিয়ে ফেললেন পরিণীতা। ততদিনে অবশ্য ‘মা লক্ষ্মী’ এসে গিয়েছেন ঘরে। মানে ‘বেটারহাফ’ শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। আর রাজকে দেখে কে?

কথা হতে হতে জিজ্ঞেস করা গেল, ‘‘কি মনে হয়, শুভশ্রী কি তোমার লেডি লাক?’’ প্রশ্ন শেষ করার আগেই রাজ বললেন "ও আমার লেডি লাক নয়, ও আমার ফুল লাক। ও আমার জন্য ভীষণ লাকি বলে আমি মনে করি। লাইফ এখন যেন অনেক স্মুদ। আমরা এখন একটা টিমের মতো কাজ করি। স্ক্রিপ্ট পড়া থেকে শুরু করে প্রডাকশান নিয়ে আলোচনা, সবটাই হয় ওঁর সঙ্গে। সি ইজ রিয়ালি রিয়ালি লাকি ফর মি।"

রাজের কেরিয়ার গ্রাফটা যদি দেখা যায়, তাহলেই বোঝা যাবে তাঁর প্রথম ছবি চিরদিনই তুমি যে আমার থেকে শুরু করে পর পর প্রায় সব ছবি ছিল দক্ষিণী ছবির রিমেক। নিজের অরিজিনাল স্ক্রিপ্ট থাকলেও পাত্তা দেননি প্রযোজকরা। সিন বাই সিন কপি করতে বাধ্য করা হয় পরিচালকদের। কারণ তাদের দরকার ছিল ট্রায়েড আ্যন্ড টেসটেড বক্স অফিস কাঁপানো ছবির রিমেক। অগত্যা নিজের খুব ইচ্ছে না থাকলেও করতে হয়েছে দক্ষিণী ছবির রিমেক। আর তাতেই গায়ে লেগেছে কপি পেস্টের তকমা।

তবে আর নয়। অনেক হয়েছে। এবার কাজ হবে বুক চিতিয়ে, মাথা উঁচু করে। যাই হোক না কেন, ইংরেজির একটি প্রবাদ মনে পড়ে গেল ' ইটস্ বেটার লেট দ্যান নেভার'। রাজের একটু লেট হয়েছে ঠিকই কিন্তু নো চিন্তা। ওই যে প্রথমেই বললাম ফুল লাক শুভশ্রী আছেন যে!

First published: December 14, 2019, 11:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर