corona virus btn
corona virus btn
Loading

শাশ্বতর অ্যাপয়েন্টমেন্ট ডায়রি থাকে স্ত্রীর কাছে, তবু তাঁকে কেন মিথ্যেবাদী বললেন মহুয়া?

শাশ্বতর অ্যাপয়েন্টমেন্ট ডায়রি থাকে স্ত্রীর কাছে, তবু তাঁকে কেন মিথ্যেবাদী বললেন মহুয়া?
  • Share this:

ARUNIMA DEY

#কলকাতা: বড় দিনের বড় আনন্দ। পার্কস্ট্রিট, নিকো পার্ক, চিড়িয়াখানা, মানুষের ঢল চোখে পরার মতো। শুধু সাধারণ মানুষই আনন্দ করবেন। তারকারা নয়? সেলেব্রিটি হলেও তাঁরাও তো মানুষ। মেক আপের আস্তরণের নীচে সাধারণ চামড়া। তাঁদেরও তো ইচ্ছে করে উৎসবের রং মাখতে।

পাঁচতারা এক নামী হোটেলে হাজির শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। একা নয় সপরিবারে ক্রিসমাস পার্টিতে মেতেছেন সকলের প্রিয় আপুদা। ছোটবেলা থেকে বড় দিনে আনন্দ করতে ভালবাসেন তিনি। এই সময়টার জন্য অপেক্ষা করে থাকতেন। বাড়ির বড়রা নানা ধরনের কেক, পেস্ট্রি নিয়ে আসতেন। ছোট থেকেই শাশ্বত খাদ্য রসিক। এসব জমিয়ে খেতেন তিনি। একসময় নিজের মর্জির মালিক ছিলেন বটে, তবে আজ কাহিনিতে এসেছে ট্যুইস্ট। অ্যাপয়েন্টমেন্ট ডাইরি থাকে গিন্নির কাছে। এখনও মোবাইলে ব্যবহার করেন না শাশ্বত। কাউকে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে হলে গিন্নির মারফত যেতে হবে। এসব অভিযোগ একেবারে মিথ্যে বলে দাবি করলেন মহুয়া চট্টোপাধ্যায়।

তবে মহুয়া মেনে নিলেন তিনি স্ট্রিক্ট মা। মেয়ে হিয়াকে শক্ত হাতেই মানুষ করেছেন তিনি। হিয়ার কথায়, মা-বাবা সমান রাগী।

Untitled

সেই একই পার্টিতে সপরিবারে দেখা মিললো ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের। রিশোনা, অঙ্কনের মাকেই পাওয়া গেলো বেশি, সুপারহিট নায়িকার ঝলক মিললো কম। ঋতুপর্ণার ছোটবেলায় বড়দিন নিয়ে তেমন মাতামাতি ছিল না। বাবা পেল্লাই একটি কেক আনতেন সেটা ঘিরেই চলতো উৎসব। ঋতুপর্ণার ছেলে মেয়েরা থাকে সিঙ্গাপুরে। এই সময়টা কলকাতায় থাকতে পছন্দ করে তারা। সান্তার কাছে রিশোনা একটা ক্যামেরা চেয়েছিল সেটা সে পেয়েছে। তার সন্দেহ তার বাবাই সান্তা হয়ে তাকে এই গিফটটা দিয়েছেন। অঙ্কন চেয়েছিল দিনটা পরিবারের সঙ্গে কাটাতে। সেটাও মিলেছে।

1501_5e0365e21f2fd_1 (2)

ঋতুপর্ণার ছেলে সামনের বছর কলেজ যাবে। নায়িকা বেশ জানেন কয়েক দিন পরই ছেলে সঙ্গে কাউকে নিয়ে এসে বলবে ''দ্যাখো মা আমার গার্লফ্রেন্ড"। খোলা মনে সেটা মেনেও নেবেন তিনি। কিন্তু তিনি চান ছেলে যেন তাঁকে সব কিছু জানায়, লুকিয়ে না রাখে। সন্তানদের সঙ্গে বন্ধুর মতোই মেশেন নায়িকা। বড় হলে তারাও ঋতুপর্ণার সঙ্গে বন্ধুর মতো ব্যবহার করবে, সেটাই চান তিনি। কাজের জন্য ঠিক করে সন্তানদের সময় দিতে পারেন না ঋতুপর্ণা, তাই নিয়ে আক্ষেপও করলেন নায়িকা।

Published by: Simli Raha
First published: December 25, 2019, 11:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर