corona virus btn
corona virus btn
Loading

'মৃণাল সেন আজও পদাতিক', জন্মদিনে পরিচালককে স্মরণ করলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় !

'মৃণাল সেন আজও পদাতিক', জন্মদিনে পরিচালককে স্মরণ করলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় !
photo source Instagram

১৯২৩ সালের ১৪ মে ফরিদপুরে জন্মগ্রহন করেছিলেন তিনি। এরপর তিনি পড়াশোনার জন্য আসেন কলকাতায়।

  • Share this:

#কলকাতা: মৃণাল সেন ! সত্যজিৎ রায়, ঋত্বিক ঘটক আর মৃণাল সেনকে ছাড়া বাংলা সিনেমা ঠিক ভাবা যায় না। এই তিন জনের সিনেমার ধরণ একেবারেই আলাদা ছিল। ১৯৫৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল পরিচালকের প্রথম ছবি 'রাতভোর'। তারপর একের পর এক ছবি দিয়ে মাইলস্টোন তৈরি করেছেন তিনি। 'ভুবন সোম', 'ইন্টারভিউ', 'পদাতিক', 'এক দিন প্রতিদিন', 'আকালের সন্ধানে', 'খারিজ', 'আমার ভুবন'-এর মতো অজস্র ছবি দিয়ে চীরকালের জন্য বাংলা সিনেমায় নিজের নাম লিখেগেছেন মৃণাল সেন।

১৯২৩ সালের ১৪ মে ফরিদপুরে জন্মগ্রহন করেছিলেন তিনি। এরপর তিনি পড়াশোনার জন্য আসেন কলকাতায়। স্কটিশচার্চ ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা করেন তিনি। আজ এই কিংবদন্তী পরিচালকের জন্মদিন। তবে ২০১৮ সালে তিনি প্রয়াত হন। তবে তাঁর জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেনি বাঙালি। সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে আজ শুধুই মৃণাল সেন।

টলিউড অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় তাঁর ইনস্টাগ্রামে মৃণাল সেনের একটি ছবি শেয়ার করেছেন। তিনি লিখেছেন, "প্রচলিত ধারার বাইরে বেরিয়ে এসে, তথাকথিত নিয়ম ভেঙে ছবি বানানোয় বিশ্বাস করতেন। কখনো রূঢ় বাস্তব বা কখনো মানুষের জীবন যুদ্ধের কঠোর কাহিনী, তাঁর চলচ্চিত্রে বার বার ফুটে উঠেছে প্রতিবাদের বার্তা। তাঁর চিত্রনাট্য বদলে দিয়েছিলো বাংলা ছবির ধারা। তাই মৃণাল সেন আজও পদাতিক। আজ তাঁকে স্মরণ করে আমার সশ্রদ্ধ প্রণাম।"

 
View this post on Instagram
 

প্রচলিত ধারার বাইরে বেরিয়ে এসে, তথাকথিত নিয়ম ভেঙে ছবি বানানোয় বিশ্বাস করতেন। কখনো রূঢ় বাস্তব বা কখনো মানুষের জীবন যুদ্ধের কঠোর কাহিনী, তাঁর চলচ্চিত্রে বার বার ফুটে উঠেছে প্রতিবাদের বার্তা। তাঁর চিত্রনাট্য বদলে দিয়েছিলো বাংলা ছবির ধারা। তাই মৃণাল সেন আজও পদাতিক। আজ তাঁকে স্মরণ করে আমার সশ্রদ্ধ প্রণাম।

A post shared by Prosenjit Chatterjee (@prosenstar) on

Published by: Piya Banerjee
First published: May 14, 2020, 4:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर