বিজেপি-তে যশ যখন যোগ দিচ্ছেন তখনই দিলীপ ঘোষকে টুইটারে তোপ নুসরতের

বিজেপি-তে যশ যখন যোগ দিচ্ছেন তখনই দিলীপ ঘোষকে টুইটারে তোপ নুসরতের
আজই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যশ দাশগুপ্ত। আর সেই যোগদান পর্বের সময়েই টুইটারে দিলীপ ঘোষকে তোপ দাগলেন নুসরত জাহান।

আজই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যশ দাশগুপ্ত। আর সেই যোগদান পর্বের সময়েই টুইটারে দিলীপ ঘোষকে তোপ দাগলেন নুসরত জাহান।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। আর ঠিক সেই সময়েই বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের নিন্দায় সরব হলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। বিগত কয়েকদিন ধরে নুসরতের সঙ্গে যশের গুঞ্জন নিয়ে সরগরম টলি পাড়া। আর সেই যশ যখন হাতে বিজেপির পতাকা তুলে নিচ্ছেন তখনই দিলীপ ঘোষকে তোপ দাগলেন বসিরহাটের সাংসদ নুসরত।

    বুধবার দিলীপ ঘোষ মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে একটি টুইট করেন। সেই টুইটে তিনি লেখেন, "তৃণমূলের লোকেরা বলে, তাদের নেত্রী মহিলা বলে তাঁকে আক্রমণ করা হয়। কিন্তু আপনারাই বলুন, এক জন মহিলা হয়ে আরেক জন মহিলার চরিত্রের দিকে আঙুল তুলতে পারেন কী করে? এই রাজ্যে ধর্ষণ হলে দিদিমণি ক্ষতিপূরণের মূল্য বেঁধে দিয়েছেন ২০ হাজার, ৪০ হাজার, ৫০ হাজার টাকা।"

    এই টুইটটি রিটুইট করেই বিজেপি নেতাকে তোপ দেগেছেন নুসরত। মহিলাদের হওয়া সওয়াল করা দিলীপ ঘোষেরই একটি পুরনো মন্তব্য উল্লেখ করে কটাক্ষ করেছেন নুসরত। এই মন্তব্যটি দিলীপ ঘোষ করেছিলেন ২০২০-র জানুয়ারি মাসে। সিএএ বিরোধী আন্দোলনে এক প্রতিবাদী মহিলা সম্পর্কে এই মন্তব্য করেছিলেন দিলীপ ঘোষ।


    তিনি বলেছিলেন, "আমাদের ছেলেরা একদম ঠিক করেছে। মহিলার ভাগ্য ভালো যে শুধুই হেনস্থা করা হয়েছে। আর অন্য কিছু করা হয়নি।" এই প্রসঙ্গ টেনে এনেই দিলীপ ঘোষকে আক্রমণ করে নুসরত লিখেছেন, "আন্দোলনরত মহিলার চরিত্র নিয়ে কাটাছেড়া করেছেন বিজেপি রাজ্য সম্পাদক দিলীপ ঘোষ।"

    প্রসঙ্গত আজ কৈলাশ বিজয়বর্গী, মুকুল রায় ও স্বপন দাশগুপ্তের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যশ দাশগুপ্ত। তবে তিনি বলেছেন, নুসরতের সঙ্গে রাজনৈতিক পার্থক্য থাকলেও তাঁরা বন্ধুই থাকবেন এবং একই সঙ্গে ছবিতে কাজ করবেন।

    এছাড়াও এদিন যশ বলেন, "এই সিদ্ধান্ত হঠাৎ করে নেওয়া নয়। আমার বয়স কম। তাই আমার লক্ষ্যও তরুণ প্রজন্ম। বিজেপি সব সময়ে তরুণ প্রজন্মের উপরেই জোর দিয়েছে। রাজনীতি মানেই পরিবর্তন। আর পরিবর্তন আনতে গেলে সিস্টেমের মধ্যে এসে কাজ করা দরকার।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: