‘‘ছবি এখন আছে ক’দিন পরও থাকবে, আমি এখন দেশ,দেশের মানুষ নিয়ে বেশি চিন্তিত’:দেব

‘‘ছবি এখন আছে ক’দিন পরও থাকবে, আমি এখন দেশ,দেশের মানুষ নিয়ে বেশি চিন্তিত’:দেব

ছবি তো রয়েছেই, তবে দেশের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে বেশি চিন্তিত তিনি। নিউজ18 বাংলার-র কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন দেব।

  • Share this:

Arunima Dey

#কলকাতা: তিনি সাংসদ তিনি নায়কও। একদিকে দেশ, রাজ্য উত্তাল, অন্য দিকে ছবির মুক্তি। ‘সাঁঝবাতি’-র প্রিমিয়ারের রাতে দেবকে নয়, পাওয়া গেল সাংসদ দীপক অধিকারীকে। ছবি তো রয়েছেই, তবে দেশের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে বেশি চিন্তিত তিনি। নিউজ18 বাংলার-র কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন দেব।

প্রশ্ন: দেব আপনাকে সকলে কমার্শিয়াল ছবির নায়ক হিসেবেই চেনে, তবে ‘সাঁঝবাতি’ তথা কথিত বাণিজ্যিক ছবি বলা চলে না। ইমেজ ভাঙতে এমন ছবি করছেন ?

দেব: এটা কিন্তু পুরোটা ঠিক কথা নয়। আমি কেরিয়ারের বিভিন্ন সময় অন্য রকম ছবি করেছি। ‘বুনো হাঁস’, ‘চাঁদের পাহাড়’ বা ‘ককপিট’ ‘পাসওয়ার্ড’ও অন্য ধরনের ছবি। তবে এটা ঠিক বেশি নাচ-গানের ছবি করি তো কমার্শিয়াল নয়কের ট্যাগটা সেটে গিয়েছে পিঠে।

প্রশ্ন: সম্প্রতি বেশ কয়েকটা ছবিতে লার্জার দ্যান লাইফ চরিত্র করেছেন। এখানে ‘চাঁদু’ বাড়ির কাজের লোক। বিষয়টা একটু রিস্ক টেকিং হয়ে গেল?

দেব: (হেসে) ভীষণ বড় রিস্ক। পরীক্ষা করলাম। পাস-ফেল, কী ফল হবে বলা মুশকিল। যে ছেলেটা দশটা গুণ্ডাকে মারতে পারে, গান গাইতে পারে, সে চাকর। আমাকে মানালো কি না। দর্শকের মনে ধরল কি না, সেটা নিয়ে চিন্তা হচ্ছে। অগ্নি-পরীক্ষা দিয়েছি বলতে পারেন। দর্শক গ্রহণ করলে ভাল লাগবে।

প্রশ্ন: দেব-পাওলি, দর্শক তো নতুন জুটি পেল এই ছবির মাধ্যমে। তাই না?

দেব: পাওলি আমার জুটি তো বটেই। তবে এই ছবিতে অনেকগুলো জুটি রয়েছে। সৌমিত্রবাবু আমার জুটি, লিলিদি আমার জুটি, লিলিদি-পাওলির একটা জুটি আছে। ছবি দেখলে কী বলছি বুঝতে পারবে। তবে পাওলি দারুণ অভিনেত্রী। ওঁর সঙ্গে কাজ করতে দারুণ লেগেছে। ওঁ আমার প্রডাকশন হাউজের ছবিও করেছে। আমরা দারুণ বন্ধু।

প্রশ্ন: পাওলি তো বলেন আপনি প্র্যাঙ্কস্টার?

দেব: সিরিয়াস ছবি করছি বলে সিরিয়াস থাকতে হবে নাকি ? কাজের সময় নিশ্চয়ই কাজটাই মন দিয়ে করা উচিত। তবে খুব গম্ভীর পরিবেশ হলে আমার দম বন্ধ লাগে। তাই হাসি-মজা করি। সকলের সঙ্গে মিশে যাওয়ার চেষ্টা করি। প্র্যাঙ্কস্টার বা লেগ পুল নয় পরিবেশটা হালকা করার চেষ্টা করি।

প্রশ্ন: সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তো প্রথম কাজ। উনি তো সব জায়গায় আপনার প্রশংসা করেছেন।

দেব: এটা আমার সৌভাগ্য। ওঁর মতো একজন আমাকে হার্ডওয়ার্কিং বলেন। শ্যুটিং-এর সময় যখনই কোনও ভাল শট দিতাম উনি আমাকে বলতেন ‘বাঃ এটা ভাল করলি তো’। এর চেয়ে বড় কমপ্লিমেন্ট হতে পারে না। আমার আর সৌমিত্রবাবুর একটা মিল রয়েছে আমরা দু’জনই কাজ পাগলা মানুষ। ওঁর থেকে অনেক কিছু শিখেছি। উনি ৬০ বছর ধরে কাজ করছেন, আমিও ৬০ বছর ধরে কাজ করতে চাই (হেসে)।

DEV_PAOLI_SANJBATI.MXF.00_26_53_13.Still003

প্রশ্ন: আপনি সাংসদ বর্তমান পরিস্থিতি NRC, CAA নিয়ে উদ্বেগ হচ্ছে? দেব: কষ্ট পেয়েছি। খারাপ লাগছে। অত্যাচারে মানুষ রাস্তায় নামতে বাধ্য হচ্ছে। ছাত্রদের পেটানো হচ্ছে, ব্যাপারটা কমিউন্যাল করে দেওয়া হচ্ছে। আমরা এগোচ্ছি না, পিছিয়ে যাচ্ছি। ব্রিটিশরা ডিভাইডেড রুল করেছিল, সেটাই আবার ফিরে আসছে। আমাদের কাছে আরও বড় বড় সমস্যা আছে। রোজগার নেই, জিনিসের দাম বাড়ছে, অনেক ইস্যু রয়েছে। সেগুলোর দিকে কেন্দ্রর মন দেওয়া উচিত। যারা সরকারে আছে তারা নিজের মতো করে আইন বানাবে। সেটা বুঝতে পারছি। শান্তি বজায় রেখে প্রতিবাদ করতে হবে।

প্রশ্ন: আপনি পথে নামছেন? দেব: দিদি নামতে বললেই নামবো। সাধারণ মানুষের পাশে আমি আছি।

প্রশ্ন: একদিকে ছবি রিলিজ, একদিকে সাংসদের দাড়িত্ব। চাপ মনে হচ্ছে? দেব: দেখুন। দেশের চেয়ে বড় কিছু হতে পারে না। ছবি এখন আছে ক’দিন পরও থাকবে। আমি এখন দেশ, দেশের মানুষ নিয়ে বেশি চিন্তিত।
First published: December 20, 2019, 9:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर