• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES NOT BJP LEFT FRONT AND TMC DID WELL IN TOLLYWOOD BENGALI FILM ARTIST FORUM ELECTION SS

পদ্ম ফুটল না টলিপাড়ায়, আর্টিস্ট ফোরামের ভোটে দাপট বাম ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠদের

টলি ইন্ডাস্ট্রি মূলত শাসকদল ঘেঁষা। দেব-মিমি-নুসরতের সাংসদ হওয়াই তার প্রমাণ।

টলি ইন্ডাস্ট্রি মূলত শাসকদল ঘেঁষা। দেব-মিমি-নুসরতের সাংসদ হওয়াই তার প্রমাণ।

  • Share this:

    #কলকাতা: টলিপাড়ায় পদ্মচাষ হল না। খালি হাতেই ফিরতে হল গেরুয়া শিবিরকে। আর্টিস্ট ফোরামের ভোটে দাপট বাম ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠদের। কার্যকরী সভাপতি পদে জয়ী বামমনস্ক শংকর চক্রবর্তী। যুগ্ম সম্পাদক পদে নির্বাচিত বামমনস্ক শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সপ্তর্ষি রায়। সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়। সাত পদে সাঁইত্রিশ জনের লড়াই। কেউ সরাসরি না বললেও বকলমে ওয়েস্ট বেঙ্গল মোশনস পিকচারস আর্টিস্টস ফোরামের ভোটে রাজনৈতিক বিভাজন স্পষ্টই ছিল। তৃণমূল-বিজেপি-বামমনস্ক প্রার্থীদের ভোটযুদ্ধ ঘিরে তুঙ্গে ছিল উত্তেজনা। ভোট হয়েছে রবিবার। রাতভর গণনা শেষে সোমবার দেখা গেল, একটি পদেও জিততে পারলেন না গেরুয়া শিবিরের মঞ্চের কেউ।

    কার্যকরী সভাপতি হলেন বামমনস্ক শংকর চক্রবর্তী ৷ তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ভরত কলকে ছিয়াশি ভোটে হারান শঙ্কর। লড়াইয়ে ছিলেন গেরুয়া শিবিরের বলে পরিচিত অঞ্জনা বসু আর অভিনেতা পার্থসারথি দেবও। এতদিন আর্টিস্টস ফোরামের কার্যকরী সভাপতি পদে মনোনীত হয়ে এসেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তিনি সরে দাঁড়ানোতেই ভোট। কে কত ভোট পেলেন -------------------------- শংকর চক্রবর্তী ৬৯২ ভরত কল ৬০৬ অঞ্জনা বসু ২৯৫ পার্থসারথি দেব ২২৪

    যুগ্ম সম্পাদক পদে লড়েন শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় ও সপ্তর্ষি রায়। এই পদেই দাঁড়িয়েছিলেন গত পুরভোটে ৯৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী শর্বরী মুখোপাধ্যায়ও। এখানেও দাঁত ফোটাতে পারেনি বিজেপি। যুগ্ম সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন, বামমনস্ক শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সপ্তর্ষি রায় ৷ সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়। সহ সভাপতি পদে নির্বাচিত বামমনস্ক পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সোহম আর অভিনেতা জিৎ। সহকারী সম্পাদক পদে নির্বাচিত রানা মিত্র ও দেবদূত ঘোষ।কার্যকরী সদস্য পদে নির্বাচিত কুশল চক্রবর্তী, সাগ্নিক ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠ জুন মালিয়া, দিগন্ত বাগচি ও সোনালি চৌধুরী।

    টলি ইন্ডাস্ট্রি মূলত শাসকদল ঘেঁষা। দেব-মিমি-নুসরতের সাংসদ হওয়াই তার প্রমাণ। তবে সম্প্রতি কয়েকজন জনপ্রিয় মুখ নাম লিখিয়েছেন বিজেপিতে। তাঁদের কেউ কেউ ভোটের লড়াইয়ে ছিলেন। যদিও, টলিপাড়ার ভোটের ফলেও বিজেপি বিরোধিতার ছাপই স্পষ্ট হল।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: