১০ বছরের প্রেমের একগুচ্ছ ছবি শেয়ার করে কাপলদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন নীল-তৃণা, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও

১০ বছরের প্রেমের একগুচ্ছ ছবি শেয়ার করে কাপলদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন নীল-তৃণা, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও
টানা ১০ বছরের সম্পর্ক নীল ও তৃণার। রুপোলি জগতে আসার বহু আগে থেকেই দুজনের সম্পর্ক। সেই সব পুরনো দিনের মুহূর্তে ছবিই কোলাজ করে একটি ভিডিও শেয়ার করলেন নীল।

টানা ১০ বছরের সম্পর্ক নীল ও তৃণার। রুপোলি জগতে আসার বহু আগে থেকেই দুজনের সম্পর্ক। সেই সব পুরনো দিনের মুহূর্তে ছবিই কোলাজ করে একটি ভিডিও শেয়ার করলেন নীল।

  • Share this:

    #কলকাতা: কিছুদিন আগেই সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন সাত পাকে বাঁধা পড়েছেন নীল ভট্টাচার্য ও তৃণা সাহা। ২০২১ এ টলিপাড়ার হাই প্রোফাইল বিয়ের মধ্যে তাঁদের বিয়ে ছিল অন্যতম। বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট। তৃণা ও নীলের ভক্তরাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন এই রাজকীয় বিয়ের। তাঁদের ভক্তের সংখ্যা গুনে শেষ করা যায় না। আর তার অন্যতম কারণ হল তাঁদের রসায়ন এবং দীর্ঘদিনের সম্পর্ক।

    টানা ১০ বছরের সম্পর্ক নীল ও তৃণার। রুপোলি জগতে আসার বহু আগে থেকেই দুজনের সম্পর্ক। সেই সব পুরনো দিনের মুহূর্তে ছবিই কোলাজ করে একটি ভিডিও শেয়ার করলেন নীল। ২০১০ সাল থেকে সম্পর্কে রয়েছেন নীল ও তৃণা। টিউশনে একসঙ্গে পড়তে পড়তেই আলাপ ও প্রেম দুজনের।

    নীল যে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন, তাতে বহু পুরনো কিছু মুহূর্ত ভেসে উঠেছে। তখন নীল ও তৃণা দুজনেই কিশোর বয়সের। সম্পর্কের পাশাপাশি দুজনে যে খুব ভালো বন্ধুও, তাও সেই ভিডিওতে স্পষ্ট। কিছু ছবিতে দুজনকে চেনার উপায় নেই।

    সেই ভিডিও শেয়ার করে ক্যাপশনে নীল লিখেছেন, আমাদের যাত্রা। তারই সঙ্গে এই ভ্যালেন্টাইন উইকে অন্য যুগলদেরও নিজেদের যাত্রার স্মৃতি শেয়ার করতে বলেছেন তাঁরা #couplechallenge এর সঙ্গে। নীল তৃণার ভিডিওটি মুহূর্তে ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

    View this post on Instagram

    A post shared by Trina Saha (@trinasaha21)

    তৃণাও একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন এই চ্যালেঞ্জটি করার জন্য। সেখানে তৃণা দুটি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন নীলকে। প্রথমটিতে নীলকে তৃণা বলেন নিজের জিভ দিয়ে নাক ছুঁতে যেটিতে নীল ব্যর্থ হন। তার পরেই তৃণা জিজ্ঞাসা করেন, "কবে তুমি আমায় প্রোপোজ করেছিলে?" সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে সফল হন নীল। নীল-তৃণার এই ভিডিওয় অন্য যুগলরাও একই ভাবে যোগ দেন।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    লেটেস্ট খবর