• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES DEV SAYS THAT HE CARES A LOT ABOUT HIS FAMILY AND HENCE HE HAS OPENED A RESTAURANT FOR HIS FATHER PBD

বাবা যাতে ব্যস্ত থাকতে পারেন সেই কারনেই বাবাকে রেস্তোরা বানিয়ে দিয়েছি:দেব

দেব জানান এই ব‍্যাপারগুলো তিনি খুব ভাল বোঝেন।তিনি নিজের বাবাকেই দেখেছেন...

দেব জানান এই ব‍্যাপারগুলো তিনি খুব ভাল বোঝেন।তিনি নিজের বাবাকেই দেখেছেন...

  • Share this:
      Sreeparna Dasgupta  

    #কলকাতা: দেব সুপারস্টারই৷ তবে স্টার হয়েও তিনি যথেষ্ট মাটির কাছে থাকা মানুষ৷ সামনেই মুক্তি পাচ্ছে দেবের নতুন ছবি সাঁঝবাতি। বার্ধক্যের অবসাদে ভুগতে থাকা মানুষদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে৷ তাই নিয়ে বেড়েছে দুঃশ্চিন্তা৷ অনেক বয়স্ক মানুষই এখন একা৷ সেই একাকীত্ব কাটানোর উপায় কী? অনেক আলোচনা চলছে, হচ্ছে সেমিনার৷ পুলিশ-প্রশাসন পাশে দাঁড়িয়েছে বৃদ্ধ নাগরিকদের৷ এবার সেই ভাবনাকেই নিজের ছবিতে নিয়ে এলেন পরিচালক লীনা গঙ্গোপাধ্যায় ও শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়৷ লিলি চক্রবর্তী-সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের এই ছবিতে থাকছেন দেব-পাওলি৷

    ঠিক সেখান থেকে দাঁড়িয়েই বেশ কয়েকটা প্রশ্ন করা হয়েছিল দেবকে। নিজে তিনি এতো ব‍্যস্ত। ছবির কাজ তো থাকেই তার পাশাপাশি সাংসদ হওয়ার কারণে মাঝেমধ‍্যেই ছুটে যেতে হয় দিল্লি। এত দৌড়োদৌড়ির মাঝে কী করে সময় বের করেন দেব? প্রশ্ন আসতেই দেবের মুখে তখন মিষ্টি হাসি। দেব জানালেন,দেখ দুরকমের নিঃসঙ্গতা হয়। এক হল যখন সন্তানরা বিদেশে থাকেন । বাবা মাকে কোনও ভাবেই তাঁদের সময় দেওয়া সম্ভব নয়। আবার আরেক রকমের নিঃসঙ্গতা হল যখন বাবা বা কর্মরত মায়েরা রিটায়ার্ড লাইফ এ পদার্পণ করেন। সেই একাকিত্বটাও সাংঘাতিক হয়। সারা জীবন একটা মানুষ ভীষন ব‍্যস্ততার পরে হঠাৎ যেন থমকে যায় তার জীবন। তখন সেই মানুষটা কী করবেন?

    দেব জানান এই ব‍্যাপারগুলো তিনি খুব ভাল বোঝেন।তিনি নিজের বাবাকেই দেখেছেন।বাবা বা মাকে তিনি শহরে যতক্ষন থাকেন সময় দেন কিন্তু তার পরেও কিছু একটা নিয়ে ব‍্যাস্ততা খুবই জরুরি হয়ে পরে।সেই কারনেই তিনি যে রোস্তোরার ব‍্যবসা খুলেছেন তাতে তাঁর বাবাকে নিযুক্ত করেছেন।এতে তাঁর বাবা বেশ ব‍্যাস্ত থাকছেন এবং ভাল সময়ও কাটাচ্ছেন।বিভিন্ন সময়ে বারেবারে দেখা গিয়েছে দেব তাঁর পরিবারের কথা ভেবে অনেক কিছুই করেছেন।যেমন নিজের বনের জন‍্যও খুলে দিয়েছেন একটি পার্লার।

    দেব একজন সেলেব্রিটি। তার সাধ‍্যমত তিনি হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাঁর পরিবারের দিকে। কিন্তু আমরা যারা আম জনতা তারাও যদি নিজেদের সাধ‍্য মতন পরিবারের পাশে দাঁড়াই তাহলে বোধহয় এই সমাজের চিত্রটার অনেকটাই বদল ঘটতে পারে।

    First published: