• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • 'পুজোর টানে নাটক ' বাংলার নাট্যকর্মীদের জন্য প্রবাসী নাট্য প্রেমীদের ভার্চুয়াল নাট্যোৎসব

'পুজোর টানে নাটক ' বাংলার নাট্যকর্মীদের জন্য প্রবাসী নাট্য প্রেমীদের ভার্চুয়াল নাট্যোৎসব

উৎসবে থাকছেন  বিভিন্ন প্রজন্মের নাট্য ব্যক্তিত্বরা।

উৎসবে থাকছেন বিভিন্ন প্রজন্মের নাট্য ব্যক্তিত্বরা।

উৎসবে থাকছেন বিভিন্ন প্রজন্মের নাট্য ব্যক্তিত্বরা।

  • Share this:

#কলকাতা: হাতে ১ মাসেরও কম সময়। দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। নানা বিধিনিষেধ মেনে হবে নিউ নর্মাল পুজো। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হওয়ায় দিকে এগোচ্ছে বিভিন্ন ক্ষেত্র। কিন্তু পুজোয় মন খারাপ বাংলার সাংস্কৃতিক জগতের । অপেক্ষায় দিন গুনছেন মিউজিসিয়ানরা, অপেক্ষারত চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা। ফার্স্ট বেল এর পর ভর্তি প্রেক্ষাগৃহে উঠে যাবে পর্দা, সেই আশায় থিয়েটার কর্মীরা। তবে বসে না থেকে আশার আলো দেখাচ্ছেন উত্তর আমেরিকার ওয়াশিংটন ডিসি অঞ্চলের নাট্যদল 'এবং থিয়েট্রিক্স'। সৌভ্রাতৃত্ব সংগঠনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তাঁরা আয়োজন করেছেন এক ভার্চুয়াল নাট্যোৎসব এর। যার নাম  ' পুজোর টানে নাটক '। ২৫ ও ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার ও রবিবার রাত ৮.৩০ টায় দেখা যাবে এই নাট্য উৎসব।

নাট্য উৎসবে থাকছেন  বিভিন্ন প্রজন্মের নাট্য ব্যক্তিত্বরা। অংশ নিচ্ছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অরুণ মুখোপাধ্যায়, দেব শংকর হালদার, বিভাস চক্রবর্তী, সুমন মুখোপাধ্যায়, কৌশিক সেন, সীমা মুখোপাধ্যায়, মেঘনাদ ভট্টাচার্য্য , দেবেশ চট্টোপাধ্যায়, ঈশিতা মুখোপাধ্যায়, সোহিনী সেনগুপ্ত, বিপ্লব বন্দ্যোপাধ্যায়, পৌলমী বসু, শুভাশিস মুখোপাধ্যায়, সুজন মুখোপাধ্যায় , বিমল চক্রবর্তী,  আশিস গোস্বামী, রেশমি সেন ও ঋদ্ধি সেন। কিছু নাটকের অংশ বিশেষ, পাঠ, গান ও থিয়েটার নিয়ে আলোচনা । থাকবে অনেক কিছুই। বিশেষ আকর্ষণ অবশ্যই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সাক্ষাৎকার । নিয়েছেন দেব শংকর হালদার। এই নাট্য উৎসব থেকে প্রাপ্ত অর্থ দান করা হবে বাংলার নাট্যকর্মীদের জন্য তৈরি হওয়া কল্যাণ তহবিলে।

  'এবং থিয়েট্রিক্স' এর তরফে জানানো হয়েছে , 'আমরা নাটক করি, নাটক দেখি , নাটক শিখি। বাংলা থিয়েটার আমাদের ছেলেবেলা, আমাদের অনুপ্রেরণা। তাই আমেরিকায় এসেও নাটক আমাদের জীবনের একটি বিশাল অংশ জুড়ে আছে। এবার পুজোয়, আমরা ' সৌভ্রাতৃত্ব' সংগঠনের সাথে কলকাতার নাট্য কর্মীদের পাশে আছি। এই দু:সময়ে, পুজোর দিনগুলোত তাদের মুখে হাসি ফোটাতে চাই। এই বিশেষ উদ্যোগে আমাদের সঙ্গে আছেন দু ধরনের মানুষ। এক হলেন কলকাতার নাটকের দিকপালেরা, যাদের পরিবেশনা দেখার জন্য মানুষের ঢল নামে পথে , যাঁরা আমাদের ও আদর্শ। আরেক হল উত্তর আমেরিকার মানুষ যাঁরা মুক্ত হস্তে দান করেছেন আমাদের এই পদক্ষেপকে বলিষ্ঠ ও সফল করার উদ্দেশ্যে।  '

সামাজিক বা শারীরিক দূরত্ব যতই থাকুক ,মানসিক ভাবে পাশে দাঁড়ানোই আসল । ভৌগলিক ব্যবধান মুছে লড়াই করার  সাহস যোগানোর পাশাপাশি সঙ্গে থাকার বার্তা প্রেরণা যোগাবে আগামীতে। মনে করেন দেব শংকর হালদার। সত্যি তো মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, তাই তো শিল্পীরাই তো থাকবেন শিল্পীদের জন্য,নাটকের জন্য।

DEBAPRIYA DUTTA MAJUMDAR

Published by:Piya Banerjee
First published: