কন্যা সন্তানের জন্মের খবর দিতে গিয়ে সমাজের প্রচলিত ছক ভেঙেছেন বিরুষ্কা !

কন্যা সন্তানের জন্মের খবর দিতে গিয়ে সমাজের প্রচলিত ছক ভেঙেছেন বিরুষ্কা !

photo source collected

অনেক প্রতীক্ষা ও জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত ১১ জানুয়ারি ক্রিকেটার বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ও অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার (Anushka Sharma) ঘরে আলো করে এসেছে এক ফুটফুটে মেয়ে।

  • Share this:

#মুম্বই: অনেক প্রতীক্ষা ও জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত ১১ জানুয়ারি ক্রিকেটার বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ও অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার (Anushka Sharma) ঘরে আলো করে এসেছে এক ফুটফুটে মেয়ে। বাবা মায়ের যে আহ্লাদের শেষ নেই, সে কথা আর আলাদা করে বলার দরকার নেই। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে সদ্য পিতৃত্বের স্বাদ পাওয়া বাবা বিরাট নিজেই এই খবর সবার সঙ্গে শেয়ার করেছেন। দু'জনেই বলেছেন যে তাঁরা একটি কন্যা সন্তানের বাবা-মা হয়েছেন এবং সবার শুভেচ্ছা, ভালোবাসা ও আশীর্বাদের জন্য সবাইকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন। মা ও মেয়ে দু'জনেই সুস্থ আছেন এবং দুই থেকে তিন হওয়ার এই পর্বে তাঁরা অত্যন্ত খুশি- বলতে ভোলেননি এই কথাও।

কিন্তু দু'জনের ভক্তরা লক্ষ্য করেছেন যে মেয়ের জন্মের খবর দেওয়ার সময়ে বিরাট ও অনুষ্কা বেছে নিয়েছেন আনকোরা হলুদ রঙ। সাধারণত মেয়েদের সঙ্গে তথাকথিত গোলাপি রঙ এবং ছেলেদের সঙ্গে নীল রঙের একটি যোগ আছে। সেই পথে না হেঁটে বিরাট আর অনুষ্কা যে অন্য একটি রঙ বেছে নিয়েছেন, তাতে বেজায় খুশি হয়েছেন নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু ভারতীয় যুবসমাজে বিরুষ্কার (Virushka) উজ্জ্বল উপস্থিতি। সব চেয়ে চর্চিত পাওয়ার কাপলদের মধ্যে কোহলি দম্পতি একজন। বোঝা যাচ্ছে হলুদ রঙ বেছে নিয়ে তাঁরা প্রত্যেককে এটাই বোঝাতে চাইছেন যে শিশুদের নিজেদের মতো করে বড় হয়ে উঠতে দেওয়া হোক। তাদের গায়ে যেন লিঙ্গ বা বিশেষ কোনও রঙের লেবেল না থাকে!

View this post on Instagram

A post shared by Virat Kohli (@virat.kohli)

ভক্তদের এই ধারণা আর দৃঢ় হয়েছে কারণ সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে বিরাট ও তাঁর স্ত্রী নিজেরাই জানিয়েছিলেন যে মেয়ে মাত্রেই তাকে গোলাপি রঙের সঙ্গে জুড়ে দিতে হবে এবং ছেলে মাত্রেই তাকে নীল রঙের সঙ্গে জুড়ে দিতে হবে- সেটা যুক্তিহীন!

কিছু দিন আগে অনুষ্কার একটি মন্তব্যও বেশ ভালো লেগেছে নেটিজেনদের। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন যে ছেলে বা মেয়ে যাই হোক না কেন, তিনি কখনওই তাকে মিডিয়ার আলোচনার বিষয় করে তুলবেন না। দু'জনেই বিশ্বাস করেন- একটি শিশু যে অন্যদের চেয়ে আলাদা এই বোধ তার মধ্যে তৈরি না করাই ভালো।

সস্ত্রীক বিরাট পশুপ্রেমী। তাই মেয়ের জন্য একটি অ্যানিম্যাল থিম নার্সারি তৈরি করেছেন দু'জনে। দু'জনেই চাইছেন- ছোট থেকেই তাঁদের মেয়ের সঙ্গে জন্তুজানোয়ারের একটা সুন্দর সম্পর্ক গড়ে উঠুক।

Published by:Piya Banerjee
First published: