corona virus btn
corona virus btn
Loading

সুশান্তের গলায় সূচ ফোটানোর চিহ্ন ও সেলোটেপ লাগানো ছিল , দাবি কুপার হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীর

সুশান্তের গলায় সূচ ফোটানোর চিহ্ন ও সেলোটেপ লাগানো ছিল , দাবি কুপার হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীর
photo source collected

তবে কি শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা 'অর্থমনর্থম' গল্পের ছকেই খুন করা হয়েছিল সুশান্তকে ? কুপার হাসপাতালের কর্মীর বক্তব্যে ফের শুরু হয়েছে চাঞ্চল্য ! তিনি দাবি করছেন সুশান্তকে খুন করাই হয়েছিল।

  • Share this:

#মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর আড়াই মাস হয়ে গেলেও এখনও সমাধান হয়নি মৃত্যু রহস্যের। যদিও মুম্বই পুলিশ জানিয়েছিল সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যাই। কিন্তু সুশান্তের পরিবার সহ গোটা দেশ এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা মানতে নারাজ। বার বার সরব হয়েছেন কঙ্গনা রানাওয়াত, শেখর সুমনের মতো সেলেবরাও। এর পর শুরু হয় তাঁর মৃত্যুর সিবিআই তদন্ত। সুশান্তের মৃত্যুর জন্য অভিনেতার পরিবার বার বার আঙুল তুলেছেন রিয়া চক্রবর্তীর দিকে। সিবিআই তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসতে শুরু করেছে।

সুশান্তের বডি নিয়ে যাওয়া হয়েছিল মুম্বইয়ের কুপার হাসপাতালে। সেখানকার এক স্বাস্থকর্মীর বক্তব্যে ফের চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ওই কর্মী সুশান্তের বডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় থেকে বডি শ্বশানে নিয়ে যাওয়া পর্যন্তই ছিলেন সঙ্গে। তাঁর কথায়, "এটা খুনই ছিল। সুশান্তের শরীরে সুই ফোটানোর চিহ্ন ছিল। গলায় ১৫ থেকে ২০টা সুইয়ের চিহ্ন ছিল। এমনকি গলায় এক জায়গায় সেলোটেপ লাগানো ছিল। পা ভাঙা ছিল।" ওই কর্মচারীর দাবি এটা খুন ছিল। অনেক ডাক্তারাও বলাবলি করছিলেন যে এটা খুন।

ওই ব্যক্তি আরও বলেন, বডি দেখেই তাঁর মনে হয়েছিল এটা আত্মহত্যা নয়। তবে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট দেখে তিনিও অবাক হয়েছিলেন। এই ব্যক্তিই দেখেছিলেন হাসপাতালে রিয়া এসে সুশান্তের কাছে ক্ষমা চাইছে। এই ভিডিওটি ট্যুইটারে শেয়ার করেছেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা। তিনি লিখেছেন, "এই সব খবর জানতে পেরে আমার হৃদয় হাজার বার ভেঙে যাচ্ছে। জানি না ওরা ভাইয়ের সঙ্গে কি করেছিল। দয়াকরে ওদের গ্রেফতার করুন।"

Published by: Piya Banerjee
First published: August 29, 2020, 4:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर