আদালত অবমাননার নোটিশ বিখ্যাত কমেডিয়ান ও কার্টুনিস্টকে

আদালত অবমাননার নোটিশ বিখ্যাত কমেডিয়ান ও কার্টুনিস্টকে

কুণাল কামরা ও রচিতা তানেজার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা তাঁদের ট্যুইটার ও ইলাস্ট্রেশনে দেশের শীর্ষ আদালতের সমালোচনা করেছেন।

কুণাল কামরা ও রচিতা তানেজার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা তাঁদের ট্যুইটার ও ইলাস্ট্রেশনে দেশের শীর্ষ আদালতের সমালোচনা করেছেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠানো হল কমেডিয়ান কুণাল কামরা ও কার্টুনিস্ট রচিতা তানেজাকে । সুপ্রিম কোর্টের পাঠানো ওই নোটিশের জবাব দেওয়ার জন্য তাঁদের ছ’ সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে।কুণাল কামরা ও রচিতা তানেজার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা তাঁদের ট্যুইটার ও ইলাস্ট্রেশনে দেশের শীর্ষ আদালতের সমালোচনা করেছেন।তাঁদের বিরুদ্ধে দু’টি ভিন্ন মামলা আনা হয়েছে এবং জবাব দেওয়ার জন্য তাঁদের ছ’ সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে৷ কিন্তু শীর্ষ আদালত ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে তাঁদের অব্যাহতি দিয়েছে।

    তাঁরা বিচারব্যবস্থাকে কলঙ্কিত করেছেন, তাই প্রশ্ন উঠেছে তাঁদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না৷ এই ব্যাখ্যাই নোটিশে বলা হয়েছে।আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে ধৃত রিপাবলিক টিভির সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীকে জামিন দেওয়ার আর্জি শীর্ষ আদালত মঞ্জুর করে৷ এরপর কমেডিয়ান কুণাল কামরা আদালতকে আক্রমণ করে বেশ কিছু ট্যুইট করেন। এরপরই কুণাল কামরার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়৷ যে আট জন কুণাল কামরার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তাঁদের মধ্যে বেশির ভাগই আইনজীবী।

    অপরদিকে সুপ্রিম কোর্টের বিরুদ্ধে রচিতা তানেজা কিছু ইলাস্ট্রেশন শেয়ার করেন৷ এরপর তাঁর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার করার অভিযোগ আসে৷ এ মাসের গোড়ায় এ ব্যাপারে সম্মতি দেন অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল।

    ওই কার্টুনিস্ট তাঁর বেশ কিছু ট্যুইটে ইলাস্ট্রেশন করেন, যার মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টকে অপমান করা হয়৷ এই বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, এর মাধ্যমে দেশের শীর্ষ আদালতকে মারাত্মক ভাবে ঠেস দেওয়া হয়েছে৷ এটি হল ওই প্রতিষ্ঠানের প্রতি দুঃসাহসিক আঘাত ও অপমান। অর্ণব গোস্বামীকে জামিন দেওয়ার পর রচিতা তাঁর ট্যুইটে সুপ্রিম কোর্টকে নিয়ে কার্টুন এঁকেছিলেন। এছাড়া তাঁর আরও কিছু ইলাস্ট্রেশন সুপ্রিম কোর্টকে কেন্দ্র করে। এরপর রচিতার বিরুদ্ধে আইনের এক ছাত্র যে আবেদন পেশ করেন, তাতে সম্মতি দেন বেণুগোপাল।

    Published by:Simli Dasgupta
    First published: