কার পৈতে আর কার টিকি তা দিয়ে কি মনুষ্যত্ব বিচার হয়? : সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

কার পৈতে আর কার টিকি তা দিয়ে কি মনুষ্যত্ব বিচার হয়? : সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
  • Share this:

DEBAPRIYA DUTTA MAJUMDER

#কলকাতা: একের পর এক ছবি। কেন্দ্রীয় চরিত্রে তিনি। এ বছরের শেষেও যেমন তার ছবি, নতুন বছরের শুরুতেই বড়পর্দায় তিনি থাকবেন স্বমহিমায়। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। ১০ জনুয়ারি মুক্তি পাবে অনীক দত্তর নতুন সিনেমা বরুণবাবুর বন্ধু। তাকে ঘিরেই এগিয়েছে ছবির চিত্রনাট্য। বার্ধক্যে পৌঁছে যাওয়া বরুণ বাবুর জন্মদিনে এক প্রভাবশালী বন্ধু দেখা করতে আসবে জেনে কিভাবে চারপাশের মানুষ পাল্টে যায় তা ফুটে উঠবে এই সিনেমায়। স্বভাবতই সমাজের প্রতিফলন তো পড়বেই। এই বিষয়টি অভিনেতা হিসেবে আনন্দ দিয়েছে তাকে। নিউজ ১৮ বাংলাকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তাঁর কবি সত্তাকে বর্তমান সময় ভাবায়। তার কথায় ' কবিকেই তো বেশি ভাবায়। যতই যা বল, খুব সুযোগ না পেলে অভিনয় কর্মটা পরনির্ভরশীল। অন্যেরা যেমন লিখে দেয়, যেমন করে সাজায় বিষয়টা, যেমন করে ছবি তোলে তার মধ্যেই ভাব -ভাবনা ব্যক্ত করতে হয়। কবিতা তো নিজের , স্বাধীন কাজ, সেখানে যদি আমি আমার চারপাশ সম্পর্কে চিন্তিত না থাকি, অবহিত না থাকি তাহলে আমি লিখব কী করে।'

এই মুহূর্তে দেশে বা রাজ্যে যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে তার প্রতিক্রিয়া? 'দক্ষিণপন্থীদের অভ্যুত্থান হচ্ছে সমস্ত পৃথিবীতে, আমাদেরও হচ্ছে। এবং সেখানে প্রায় ফ্যাসিস্ট কায়দায় অনেক কিছু বলে দেওয়া হচ্ছে আর সেই ফ্যাসিস্ট কায়দার মধ্যে এমন সাম্প্রদায়িক বিভাজন আছে যেটা ইহুদী নির্যাতনকে মনে করিয়ে দেয়। অ্যাক্টিভিস্টরা কিছু নিশ্চয় করবেন, দরকারে আমরাও কিছু বলবো '

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার প্রশ্নে তার উত্তর ' সম্প্রীতি অনেকটাই নষ্ট হয়ে গিয়েছে৷ 'সেই প্রসঙ্গেই তিনি তুলে আনেন তার এক অভিজ্ঞতার কথা। লেখার কারণে কিছুদিন আগে পুরুলিয়ার এক গ্রামে কিছুদিন কাটিয়েছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। সেই গ্রামে পাশাপাশি মন্দির আর মসজিদ ছিল । সেখানে তাদের গ্রামে ঘুরতে ঘুরতে তার প্রশ্ন ছিল দুজন মানুষের কাছে ' সংক্রান্তির সময় সবাই এখান দিয়েই আসে ? গোলমাল ঝামেলা বেঁধে যায় না ? উত্তরে তারা জানিয়েছিলেন ' এক গাঁয়ে থাকি , ঝামেলা লাগলে চলবে বাবু? এমনিতেই যাতায়াত , সবকিছু এর মধ্যে দিয়েই, এবার যদি মারামারিও করি কে কোথায় থাকবে বলুন তো। ' সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, এর থেকে সহজ সরল সত্য হতে পারে না। কিছু মানুষের অন্য মনোভাব থাকলেও বেশিরভাগ সাধারণ মানুষ এই পরিস্থিতি চায় না । তাঁর কথায় ' কার পৈতে আর কার টিকি তা দিয়ে কি মনুষ্যত্ব বিচার হয়' ?

First published: 10:42:32 PM Dec 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर