বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘তোমাকে মিস করব ছানা দাদু’, ট্যুইট করলেন দেব

‘তোমাকে মিস করব ছানা দাদু’, ট্যুইট করলেন দেব

রবিবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ প্রায় ৪০ দিন ধরে জীবন-মরণ লড়াই করেছেন সৌমিত্র ৷

  • Share this:
#কলকাতা: প্রয়াত বাংলা সিনেমার অন্যতম উজ্জ্বল নক্ষত্র সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ রবিবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ প্রায় ৪০ দিন ধরে জীবন-মরণ লড়াই করেছেন সৌমিত্র ৷ কেরিয়ার শুরুতেও যেমন ছিল লড়াই, সিনেমার পর্দাতেও মধ্যবিত্তের লড়াইকে সামনে এনেছিলেন তিনি ৷ সেই লড়াই- রইল শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত ৷ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে ভারতীয় সিনেমার এক উজ্জ্বল অধ্যায়ের শেষ হলো৷ যেভাবে তিনি প্রতি প্রজন্মের অভিনেতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে অভিনয় করে গিয়েছেন, তা সত্যিই আগামী প্রজন্মের অভিনেতাদের কাছে শেখার বিষয়৷ আর তাই হয়তো সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনাবসান হওয়ার পরেও, তিনি সদা উজ্জ্বল হয়ে থাকবেন রুপোলি পর্দায় ৷ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘সাঁঝবাতি’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন দেব ৷ সেই ছবিরই দুটি দৃশ্য ট্যুইট করে দেব লিখলেন, ‘তুমি যেখানেই থেকো, ভালো থেকো, তোমাকে খুব মিস করবো ছানা দাদু !’ ছিপছিপে চেহারা, উজ্জ্বল চোখ ও মন খোলা হাসি ৷ সৌমিত্র মানেই দীর্ঘাঙ্গি সু-পুরুষ নায়ক ৷ উত্তমের পর সে সময় মেয়েদের মনে ঝড় তুলতে সক্ষম হয়েছিলেন সৌমিত্রই ৷ বাঙাল-ঘটির লড়াইয়ে সব সময়ই উত্তম-সৌমিত্র কেন্দ্র বিন্দু৷ ফ্যানেরাও দু’ভাগ ৷ একদিকে যখন উত্তমের নামে বক্স অফিসে দৌঁড়চ্ছে, অন্যদিকে সৌমিত্রও তাঁর স্টাইলে কামাল দেখিয়েছেন ৷  তপন সিনহার ‘ঝিন্দের বন্দি’ ছবিতে উত্তম-সৌমিত্রের অভিনয়ের লড়াই তাক লাগিয়েছিল সবাইকে ৷ পর্দায় যেন অভিনয়ের যুদ্ধ ৷ তবে শুধুই ঝিন্দের বন্দি নয়, দেবদাস, স্ত্রী, যদি জানতাম ছবিতেও উত্তম-সৌমিত্রকে একই সঙ্গে অভিনয় করতে দেখেছে সিনেপ্রেমী মানুষ ৷ কখনও রোমান্টিক নায়ক ৷ কখনও লড়াই করা মধ্যবিত্ত যুবকের চরিত্রে সৌমিত্র বাঙালির ঘরে জায়গা করে নিয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ বাণিজ্যিক ছবি থেকে অন্য ধারার ছবিতেও সমান ভাবে ছাপ ফেলেছিলেন সৌমিত্র ৷ তবে সত্যজিৎ রায়ের ছবিতে অভিনয়ই তাঁকে গোটা বিশ্বে জনপ্রিয় করেছিল সবচেয়ে বেশি ৷
Published by: Akash Misra
First published: November 15, 2020, 2:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर