‘তোমাকে মিস করব ছানা দাদু’, ট্যুইট করলেন দেব

‘তোমাকে মিস করব ছানা দাদু’, ট্যুইট করলেন দেব

রবিবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ প্রায় ৪০ দিন ধরে জীবন-মরণ লড়াই করেছেন সৌমিত্র ৷

রবিবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ প্রায় ৪০ দিন ধরে জীবন-মরণ লড়াই করেছেন সৌমিত্র ৷

  • Share this:
    #কলকাতা: প্রয়াত বাংলা সিনেমার অন্যতম উজ্জ্বল নক্ষত্র সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ রবিবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ প্রায় ৪০ দিন ধরে জীবন-মরণ লড়াই করেছেন সৌমিত্র ৷ কেরিয়ার শুরুতেও যেমন ছিল লড়াই, সিনেমার পর্দাতেও মধ্যবিত্তের লড়াইকে সামনে এনেছিলেন তিনি ৷ সেই লড়াই- রইল শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত ৷ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে ভারতীয় সিনেমার এক উজ্জ্বল অধ্যায়ের শেষ হলো৷ যেভাবে তিনি প্রতি প্রজন্মের অভিনেতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে অভিনয় করে গিয়েছেন, তা সত্যিই আগামী প্রজন্মের অভিনেতাদের কাছে শেখার বিষয়৷ আর তাই হয়তো সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনাবসান হওয়ার পরেও, তিনি সদা উজ্জ্বল হয়ে থাকবেন রুপোলি পর্দায় ৷ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘সাঁঝবাতি’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন দেব ৷ সেই ছবিরই দুটি দৃশ্য ট্যুইট করে দেব লিখলেন, ‘তুমি যেখানেই থেকো, ভালো থেকো, তোমাকে খুব মিস করবো ছানা দাদু !’ ছিপছিপে চেহারা, উজ্জ্বল চোখ ও মন খোলা হাসি ৷ সৌমিত্র মানেই দীর্ঘাঙ্গি সু-পুরুষ নায়ক ৷ উত্তমের পর সে সময় মেয়েদের মনে ঝড় তুলতে সক্ষম হয়েছিলেন সৌমিত্রই ৷ বাঙাল-ঘটির লড়াইয়ে সব সময়ই উত্তম-সৌমিত্র কেন্দ্র বিন্দু৷ ফ্যানেরাও দু’ভাগ ৷ একদিকে যখন উত্তমের নামে বক্স অফিসে দৌঁড়চ্ছে, অন্যদিকে সৌমিত্রও তাঁর স্টাইলে কামাল দেখিয়েছেন ৷  তপন সিনহার ‘ঝিন্দের বন্দি’ ছবিতে উত্তম-সৌমিত্রের অভিনয়ের লড়াই তাক লাগিয়েছিল সবাইকে ৷ পর্দায় যেন অভিনয়ের যুদ্ধ ৷ তবে শুধুই ঝিন্দের বন্দি নয়, দেবদাস, স্ত্রী, যদি জানতাম ছবিতেও উত্তম-সৌমিত্রকে একই সঙ্গে অভিনয় করতে দেখেছে সিনেপ্রেমী মানুষ ৷ কখনও রোমান্টিক নায়ক ৷ কখনও লড়াই করা মধ্যবিত্ত যুবকের চরিত্রে সৌমিত্র বাঙালির ঘরে জায়গা করে নিয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ৷ বাণিজ্যিক ছবি থেকে অন্য ধারার ছবিতেও সমান ভাবে ছাপ ফেলেছিলেন সৌমিত্র ৷ তবে সত্যজিৎ রায়ের ছবিতে অভিনয়ই তাঁকে গোটা বিশ্বে জনপ্রিয় করেছিল সবচেয়ে বেশি ৷
    Published by:Akash Misra
    First published:

    লেটেস্ট খবর