লকডাউনে দু'দিনে আবৃত্তি করেছিলেন গোটা আবোল তাবোল, কর্মময়তারই আরেক নাম সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

লকডাউনে দু'দিনে আবৃত্তি করেছিলেন গোটা আবোল তাবোল, কর্মময়তারই আরেক নাম সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

বেলাশেষে তিনি চললেন তিন ভুবনের পারে, তবে আট থেকে আশির জন্য সৌমিত্রকে মনে রাখার হরেক উপাদান সৌমিত্র নিজেই রেখে গেলেন সযত্নে গুছিয়ে।

বেলাশেষে তিনি চললেন তিন ভুবনের পারে, তবে আট থেকে আশির জন্য সৌমিত্রকে মনে রাখার হরেক উপাদান সৌমিত্র নিজেই রেখে গেলেন সযত্নে গুছিয়ে।

  • Share this:

    #কলকাতা: কর্মময়তা, শুধু এই একটি শব্দই তাঁর জীবনকে বর্ণনা করতে পারে। আর আজ যখন মৃত্যু এসে দাঁড়ি টেনে দিল তাঁর এই লম্বা ইনিংসে, উজ্জ্বল মিনারের মতো দাঁড়িয়ে রয়েছে তাঁর কাজ। মৃত্যুর এক দিন আগেও সামনে এসেছে সেই কাজ। হ্য়াঁ, গতকাল অর্থাৎ শনিবারই সামনে এসেছে তাঁর গলায় আবোল তাবোলের একাংশ।

    ১৯২৩ সালে প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল আবোল তাবোল। ৫৩ টি ছড়ার সেই বই আজও বাঙালির মনের মনিকোঠায় রয়েছে। তারই একটি অংশ মিনিস্ট্রি অফ মিউজিক ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে গতকাল। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সত্যজিৎ পুত্র সন্দীপ রায়। লকডাইনের মধ্যেই আবোলতাবোল পাঠের কাজ শেষ করেন সৌমিত্র। গোটা কাজটি সারতে মাত্র দুদিন সময় নিয়েছিলেন সৌমিত্র।

    এখনও অবধি সামনে এসেছে গোঁফ চুরি. কাঠবুড়ো, খিচুড়ি, সৎ পাত্র, গানের গুঁতোর মতো বিখ্যাত ছড়াগুলি। বাকি অংশগুলি ধাপে ধাপে প্রকাশিত হবে।

    আজ সকালে বেলভিউ হাসপাতাল কিংবদন্তি অভিনেতার মৃত্যুর কথা ঘোষণা করেছে। বেলাশেষে তিনি চললেন তিন ভুবনের পারে, তবে আট থেকে আশির জন্য সৌমিত্রকে মনে রাখার হরেক উপাদান সৌমিত্র নিজেই রেখে গেলেন সযত্নে গুছিয়ে।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর