Sidharth Shukla :‘লম্বা জীবন, আমাদের আবার দেখা হবে...’ প্রয়াত সিদ্ধার্থর পুরনো বার্তায় দ্রব নেটদুনিয়া

সিদ্ধার্থ শুক্লা

প্রয়াত অভিনেতার (Sidharth Shukla ) স্মৃতিতে এখন বুঁদ তাঁর অনুরাগীরা

  • Share this:

    মুম্বই : ট্যুইটবার্তার পর এ বার সিদ্ধার্থ শুক্লার (Sidharth Shukla ) ভিডিয়োক্লিপ ৷ নতুন করে ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক মাধ্যমে ৷ মাত্র ৪০ বছর বয়সে প্রয়াত অভিনেতার স্মৃতিতে এখন বুঁদ তাঁর অনুরাগীরা ৷ যে ভিডিয়োটি ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে এক ভক্তকে আরোগ্যকামনা জানাচ্ছেন তিনি ৷ বলছেন, ‘‘আমি দুঃখিত, আমরা দেখা করতে পারলাম না ৷ আমি জানতে পেরেছি তোমার বোন ভাল ছিলেন না ৷ আশা করি, তিনি এখন ভাল আছেন ৷ আমার ভালবাসা ও প্রার্থনা রইল তাঁর জন্য ৷ উনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন ৷ তুমি ভাল থাকো৷’’ ভিডিয়োয় তাঁকে আরও বলতে শোনা যায়, ‘‘লম্বা জীবন ৷ আমাদের আবার দেখা হবে৷ ভাল থাকো, বিদায়৷’’

    যে অনুরাগীর জন্য সিদ্ধার্থ এই ভার্চুয়াল বার্তা পাঠিয়েছিলেন, তিনি ভিডিয়োটি আপলোড করেছেন ৷ লিখেছেন, ‘‘আমি ওঁর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলাম ৷ কিন্তু কোনও কারণে পারিনি...সিদ্ধার্থ শুক্লা, তোমাকে সব সময় ভালবাসব...তুমি আমার অনুপ্রেরণা ৷ ’’

    বৃহস্পতিবার সকালে প্রয়াত হন হিন্দি বিনোদন দুনিয়ায় পরিচিত মুখ সিদ্ধার্থ শুক্লা ৷ প্রাথমিক রিপোর্টে বলা হয়েছে, তিনি হৃদরোগে প্রয়াত হয়েছেন ৷ কুপার হাসপাতালে তাঁর পোস্ট মর্টেম করা হয় ৷ রিপোর্ট বলছে, তাঁর দেহের বাইরে বা ভিতরে কোনও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি ৷

    মুম্বইয়ের ওশিয়ারা শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় ৷ পরিজনরা ছাড়াও সে সময় উপস্থিত ছিলেন শেহনাজ গিল, অসীম রিয়াজ, আরতি সিংহ, রশমাই দেশাই, নিকি টম্বোলি, বিকাশ গুপ্ত, আলি গনি, প্রিন্স নারুলা, যুবিকা চৌধুরী, রাখি সাওয়ান্ত, অভিনব শুক্লা, অর্জুন বিজলানি, করণবীর বোহরা ও রাহুল মহাজন ৷

    ‘বালিকা বধূ’ ধারাবাহিকের পর রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন সিদ্ধার্থ ৷ তিনি অংশ নেন ‘খতরোঁ কে খিলাড়ি’-র সপ্তম মরসুম এবং ‘ঝলক দিখলা যা’-র ষষ্ঠ মরসুমে ৷ ‘বিগ বস’-এর ত্রয়োদশ মরসুমে তিনি বিজয়ী হন ৷ এর পর চলে আসেন চর্চা ও জনপ্রিয়তার শীর্ষে ৷ অভিনয় করেছিলেন ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহনিয়া’ ছবিতে আলিয়া ভাট ও বরুণ ধওয়নের সঙ্গে ৷ শেষ বার তাঁকে পর্দায় দেখা গিয়েছিল ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল থ্রি’-র তৃতীয় মরসুমে ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: