‘কত বার যৌন সম্পর্ক হয়েছে ?’ ইনস্টাগ্রামে এই প্রশ্নের যোগ্য জবাব অভিনেত্রী শ্রুতি দাসের

শ্রুতি দাস, ছবি-ফেসবুক

ইংরেজিতে যা লেখেন তার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, ‘ভাই, আমি তোমায় চিনি না৷ তবে ভাল হয় তুমি যদি তোমার মাকে একবার জিজ্ঞাসা করো ৷ বয়োজ্যেষ্ঠরাই আগে উত্তর দিন৷’

  • Share this:

    কলকাতা : সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের বিস্ফোরক শ্রুতি দাস ৷ ‘দেশের মাটি’-র নায়িকা এ বার সপাট উত্তর দিলেন এক নেটিজেনকে৷ তাঁর কাছে শেষ অবধি ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন ওই তরুণ ৷

    ঘটনার সূত্রপাত রবিবার ৷ ইনস্টাগ্রামে অনুরাগীদের মুখোমুখি হয়েছিলেন অভিনেত্রী ৷ চলছিল কথাবার্তা ৷ সুর কাটল এক যুবকের প্রশ্নে ৷ জনৈক শুভজিৎ নামের ওই ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী শ্রুতিকে প্রশ্ন করে বসেন, ‘কত বার সেক্স করেছ?’

    সোশ্যাল মিডিয়ার খোলা প্ল্যাটফর্মে অস্বস্তিকর ওই প্রশ্ন কিন্তু এড়িয়ে যাননি ‘ত্রিনয়নী’-র নায়িকা ৷ শুভজিৎকে উপযুক্ত জবাব দেন তিনি ৷ ইংরেজিতে যা লেখেন তার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, ‘ভাই, আমি তোমায় চিনি না৷ তবে ভাল হয় তুমি যদি তোমার মাকে একবার জিজ্ঞাসা করো ৷ বয়োজ্যেষ্ঠরাই আগে উত্তর দিন৷’

    শুধু লেখা নয়৷ সঙ্গে নিজের একটি সাদাকালো ছবিও দেন শ্রুতি ৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে, হাত দিয়ে মুখ ঢেকে আছেন তিনি ৷ সঙ্গে আরও লেখা, ‘লজ্জা পাচ্ছি৷ কাকিমার লজ্জা পাওয়া মুখটা দেখতে চাই, ভাই, প্লিজ৷’

    অভিনেত্রীর কাছ থেকে এই তীক্ষ্ণ উত্তর আসার পরে ওই নেটিজেনের অবস্থান চলে যায় সম্পূর্ণ বিপরীত মেরুতে ৷ আক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে তিনি লেখেন, ‘প্লিজ আমাকে সকলে গাল দিয়ো না৷’ শ্রুতির উদ্দেশে বলেন, শেষ অবধি তিনি তাঁর প্রেমে পড়ে গিয়েছেন৷

    সামাজিক মাধ্যমের পাতায় থাকা ফলে তারকারা এখন সহজেই দর্শকদের আয়াসের মধ্যে ৷ ফলে প্রশংসার পাশাপাশি ট্রোলিংয়ের শিকারও হন সহজেই ৷ এর আগেও কটূক্তির শিকার হন তিনি ৷ বলা হয়, ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকে নোয়ারূপী শ্রুতিকে আর নায়িকা হিসেবে মেনে নেওয়া যাচ্ছে না ৷ তাঁর বিপরীতে কিয়ানের ভূমিকায় আছেন দিব্যজ্যোতি দত্ত ৷

    ধারাবাহিকের আরও একটি জুটি হল রাজা-মাম্পি ৷ রাজার ভূমিকায় রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় ও  মাম্পিবেশী রুকমার অফস্ক্রিন প্রেম নিয়েও এখন চর্চা তুঙ্গে ৷ যদিও দুই কুশীলবের দাবি, তাঁরা শুধুই ভাল বন্ধু ৷ সংবাদমাধ্যমে রাহুল বলেছেন, রুমকমা তাঁর থেকে বয়সে অনেক ছোট ৷ তিনি রুকমাকে খুব ভালবাসেন ৷ কিন্তু সেটা প্রেমের সম্পর্ক নয় ৷

    সবমিলিয়ে, এই পরিস্থিতিতে নেটমাধ্যমের একাংশে দাবি উঠেছে, রাজা- মাম্পিকেই ধরাবাহিকের মূল জুটি করা হোক ৷ নোয়া-কিয়ানকে অসহ্য লাগছে, সেকথাও জানাতে দ্বিধা করেননি অনেকেই ৷

    এর পরই নিজের ফেসবুকে সপাট উত্তর দেন শ্রুতি ৷ তাঁর কথায়, ‘দেশের মাটি’ তথাকাথিত নায়ক নায়িকা ভিত্তিক ধারাবাহিক নয় ৷ এখানে প্রতিটি চরিত্রই নায়ক বা নায়িকা ৷ অভিনেত্রীর দাবি, ‘দেশের মাটি’-তে তিনি আর দিব্যজ্যোতি নায়ক নায়িকা থাকছেন না, এ কথা বলে তাঁর মনোবল ভাঙানো যাবে না ৷

    সে বারের মতো এই ট্রোলিংয়েও শ্রুতির পাশে অনেকে দাঁড়িয়েছেন ৷ বাহবা জানিয়েছেন তাঁর মোক্ষম জবাব দেওয়াকে৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: