বিনোদন

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

Shikara Review: বুঁদ হয়ে থাকবেন কাশ্মীরের ‘প্রেমে’, রাজনীতি খুঁজলেই মুশকিল !

Shikara Review: বুঁদ হয়ে থাকবেন কাশ্মীরের ‘প্রেমে’, রাজনীতি খুঁজলেই মুশকিল !

এই ছবি একেবারেই ‘লভ ইন কাশ্মীর’ ৷ ঠিক যেমন ছবির শুরুর দিকে ফ্ল্যাশব্যাক !

  • Share this:

#কলকাতা: কাশ্মীর ব্যাপারটা আসলে সত্যিই প্রেম ! একদম পুরনো বলিউড ! যেখানে গান মানেই কাশ্মীরের ডাল লেক, নিশাদ বাগ বা মুঘল গার্ডেন ৷ আর প্রেক্ষাপটে চোখ জুড়নো পর্বতমালা ৷ আর সেই পর্বতমালাকে চাক্ষুষ করে ধীরে ধীরে ডালের জলে শিকারা এগিয়ে নিয়ে যাওয়া ৷ উফফ...ঠিক যেন কবিতা বা উর্দু নজম ! বিধুবিনোদ চোপড়ার ‘শিকারা’ ছবিটি একেবারেই এরকম প্রেম, সুন্দর কাশ্মীর ও উষ্ণতায় মোড়া ৷ এ আর রহমনের আবহসঙ্গীতে এই ছবি বুঁদ হয়ে থাকার মতো ৷ আর বুঁদ হয়ে থাকবেনও, কিন্তু সাবধান ! আপনি যদি ১৯৯০ সালের কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ‘উদবাস্তু’ সম্পর্কে জেনারেল নলেজ বাড়ানোর জন্য এই ছবি দেখতে আসেন, তা হলে সেই নলেজে একেবারেই জল !

১৯৯০ সালে কাশ্মীর পণ্ডিত ইস্যু বিধু বিনোদ চোপড়া যথসামান্য রেখেছেন শুধুমাত্র ছবিকে আকার দেওয়ার জন্য ৷ তাছাড়া এই ছবি একেবারেই ‘লভ ইন কাশ্মীর’ ৷ ঠিক যেমন ছবির শুরুর দিকে ফ্ল্যাশব্যাক !

লেখক রাহুল পণ্ডিতের ‘আওর মুন হ্যাজ ব্লাড ক্লট’ উপন্যাস থেকে কয়েকটা পাতা নিয়েই কাশ্মীরের এই প্রেমের গল্প ছবির পর্দায় নিয়ে এসেছেন বিধু বিনোদ ৷ আর খুব সচেতন ভাবেই সেই সব পাতাতেই আটকে থেকেছেন বিধু বিনোদ ৷ ছবিতে রাজনৈতিক রঙ লাগার ভয়ে? হয়তো কিছুটা তাই ! কাশ্মীর এমন একটা বিষয়, যাকে ঠিকঠাক পর্দায় আনাটা বেশ কষ্টকর ৷ মগজে একটু শান দিয়ে দেখুন, মণিরত্নম তাঁর ‘রোজা’ থেকে শুরু করে সুজিত সরকারের ‘ইয়াহাঁ’ কিংবা হালফিলের ইমতিয়াজ আলির প্রযোজনায় তৈরি লয়লা মজনু ! প্রত্যেকটি ছবিই খুব সচতেন ভাবে কাশ্মীরের কঠোর রাজনীতিকে বাইপাস করেছেন, ব্যতিক্রম অবশ্য বিশাল ভরদ্বাজের ‘হয়দার’ ৷ অবশ্য সেই ছবিও সম্পর্কের বেড়াজালে আটকে কাশ্মীরকে তুলে ধরেছিল ৷ কিছুটা চেষ্টা করেছিলেন পরিচালক ওনির তাঁর ‘আই অ্যাম’ ছবিতেও ৷ বিধুবিনোদও তাই করলেন, শুধু আগের সব পরিচালকের থেকে বেশি ‘সুযোগ’ পেয়েও সতর্ক খেললেন ! যে কাশ্মীর পণ্ডিতের উদবাস্তু সমস্যাই হতে পারত ট্রাম্প কার্ড, তাই এই ছবির দুর্বল পয়েন্ট হয়ে দাঁড়াল ৷

তাহলে কী ‘শিকারা’ একেবারেই দেখার মতো ছবি নয় ?

বহুদিন বলিউডে প্রেমে বুঁদ হয়ে যাওয়ার মতো ছবি তৈরি হয় না ৷ সেখানে দাঁড়িয়ে ‘শিকারা’ আদ্যপান্ত একটি প্রেমর মাখো মাখো ছবি ৷ এখানে প্রেম আছে, ইমোশন আছে, বন্ধুত্ব রয়েছে, আত্মত্যাগ রয়েছে ৷ যা একেবারে রয়েছে ফমূর্লা মেপে ৷ আর তাই যদি প্রেমের ছবি হিসেবে ‘শিকারা’ দেখতে যান ! অবশ্যই দেখুন ৷ প্রেমের স্বপ্নে ভাসিয়ে রাখার মতো সিনেম্যাটোগ্রাফিতে শিকারা চোখের পাতা ভার করে রাখবে ৷ রাজনীতি খুঁজতে চাইলেই মুশকিল ৷

এই ছবির সবচেয়ে শক্তপোক্ত খুঁটি হল ছবির নায়ক-নায়িকা সাদিয়া ও আদিল খান ৷ সাদিয়ার ইনোসেন্স এই ছবির আসল রূপটান ৷ অন্যদিকে, আদিল খানের স্ক্রিন প্রেজেন্স ও ভয়েস কোয়ালিটি মন কাড়বে ৷ অল্প হলেও নজর কাড়েন প্রিয়াংশু চট্টোপাধ্যায় ৷

সবশেষে, বিধু বিনোদ বরাবরই প্রেমের গল্প বলেন, এক মুঠো সময়কে সঙ্গে করে, তা ১৯৪২ আ লাভ স্টোরি হোক বা হালফিলের এই ‘শিকারা’ ৷ বিধু বিনোদ যদি একটু কাশ্মীর পণ্ডিতদের ঘর হারানোর হাহাকারকে সঠিক অর্থে তুলে ধরতেন, তাহলে এই ‘শিকারা’ আর বেশি দূর ভাসতে পারত !

Published by: Akash Misra
First published: February 10, 2020, 7:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर